বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সান মেরিনা হোটেল কী আবেদ আলীর? 

আপডেট : ০৯ জুলাই ২০২৪, ০১:৩২ পিএম

সম্প্রতি দেশের একটি বেসরকারি গণমাধ্যমের অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে বিসিএসসহ ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত সরকারী কর্ম কমিশন (পিএসসি) চেয়ারম্যানের সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী। এ ঘটনায় আলোচনায় আসার পরই বেরিয়ে আসে তাঁর অঢেল সম্পদের তথ্য। তাঁর ফেসবুক ঘেঁটে জানা যায় কুয়াকাটায় নির্মাণাধীন তিন তারকা হোটেল সান মেরিনার মালিকানা রয়েছে তাঁর। ফেসবুক হোটেলটির শেয়ার বিক্রির পোস্টও করেছেন তিনি। 

১৮ মে এক পোস্টে তিনি লেখেন, ‘আমাদের নতুন হোটেল এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলাম আজ। হোটেল সান মেরিনা, কুয়াকাটা। সমুদ্রকন্যার পাড়ে আজীবন নিজের জন্য একটা থাকার ব্যবস্থা ও একইসাথে একটা হোটেলের মালিকানা অর্জন করতে আপনিও শেয়ার কিনতে পারেন। শেয়ার কিনতে যোগাযোগ করুন।’

তবে হোটেলটির মালিক মালিক মোশারফ হোসেন দেশ রূপান্তরকে জানিয়েছেন, হোটেলের কোন শেয়ার মালিকানা নেই সৈয়দ আবেদ আলীর।’

সরজমিনে কুয়াকাটায় গিয়ে জানা যায়, ২০১০ সালে কুয়াকাটার ৭নং ওয়ার্ডের পাঞ্জুপাড়ায় ৪০ শতক জমি ক্রয় করেন লিবার্টি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মোশারফ হোসেন। এখনো হোটেলটি নির্মাণ করা হয়নি। চারিদিকে সীমানা প্রাচীর দেয়া হোটেলের জায়গা খালি পড়ে আছে। তবে শ্রমিকদের থাকার জন্য বেশ কয়েকটি শেড তৈরি আছে। সেখানে একটি সাইনবোর্ড টানানো আছে। নির্মাণাধীন হোটেলের নকশাসহ হট লাইন নম্বর দিয়ে সাইনবোর্ডে লেখা রয়েছে শেয়ার বিক্রি চলছে। 

আবেদ আলীর মালিকানার বিষয়ে জানতে চাইলে লিবার্টি গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও জমিন মালিক মো. মোশারফ হোসেন তার সাইট ম্যানেজার ফারুক হোসেনের উদ্ধৃতি দিয়ে দেশ রূপান্তরকে বলেন, ২-৩ মাস পূর্বে কুয়াকাটা ভ্রমণে এসে আমার হোটেলের সামনে কোন একটি হোটেলে অবস্থান করেন সৈয়দ আবেদ আলী। এ সময় এক সকালে আমার হোটেলের সামনে গিয়ে শেয়ার কিনবে বলে জানায়। সাইট ম্যানেজার ফারুক তাকে বিস্তারিত জানায় এবং একটি লিফলেট ধরিয়ে দেন। আমি আদৌ তাকে কখনো দেখিনি, চিনিও না। 

সৈয়দ আবেদ আলীকে একজন টাউট প্রকৃতির লোক দাবী করে মোশারফ হোসেন আরও বলেন, আজ মঙ্গলবার গুলশান থানায় সাধারণ ডায়েরী করব।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত