মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

এমপিওভুক্তিতে বরাদ্দ না দেওয়ায় অর্থমন্ত্রীর সমালোচনা

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:১০ এএম

অনুরোধের পরও গত বাজেটে শিক্ষকদের এমপিওভুক্তির জন্য বরাদ্দ না দেওয়ায় সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগ ও ১৪ দলীয় জোটের সংসদ সদস্যরা। এ বিষয়ে নতুন অর্থমন্ত্রীকে ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে জাতীয় সংসদের অধিবেশনে। গতকাল সোমবারের অধিবেশনে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় দেশের কেউ জড়িত থাকলে এ বিষয়ে অর্থমন্ত্রীর বিবৃতিও দাবি করা হয়।

এদিন জাতীয় সংসদে পয়েন্ট অব অর্ডারে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এবং ১৪ দলের অন্যতম শরিক জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও জাতীয় পার্টির মুজিবুল হক চুন্নু এমপিও নিয়ে কথা বলেন। নাসিম বলেন, ‘মাত্র ৩ হাজার কোটি টাকার জন্য ২ হাজার শিক্ষক এমপিওভুক্ত হতে পারেননি। এবার আওয়ামী লীগ সরকার বিশাল বিজয় নিয়ে ক্ষমতায় এসেছে। এখন নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের সময়। নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, সরকার গঠন করলে শিক্ষকদের এমপিওভুক্ত করা হবে। ছয় মাস আগে এমপিওভুক্তির জন্য তালিকা করা হয়েছিল। সংসদে এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। কিন্তু এটি ঝুলে আছে। এখন আর এটি ঝুলিয়ে রাখা যাবে না।’ শিক্ষামন্ত্রীকে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘শিক্ষকদের অভুক্ত ও জীর্ণ-শীর্ণ রেখে উন্নয়ন সম্ভব নয়।’ নাসিমের দাবি সমর্থন করে হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘গত ১০ বছরে শিক্ষায় অভূতপূর্ব উন্নতি হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত এমপিওভুক্তির দাবি উপেক্ষিত হয়েছে। অর্থমন্ত্রী টাকা বরাদ্দ করেননি। এই মুহূর্তে সময় এসেছে, শিক্ষকদের জীবনমান উন্নয়ন ও দক্ষতা বৃদ্ধি করার। শিক্ষা খাতে বিনিয়োগ কখনো বিফলে যায় না। ২০৪১ সালের লক্ষ্য অর্জন করতে হলে শিক্ষার মান বাড়াতে হবে।’

মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, ‘গত তিন বছর ধরে বাংলাদেশ ব্যাংকের চুরি যাওয়া টাকা উদ্ধার করা যায়নি। আর সেখানে মাত্র ৩ হাজার কোটি টাকার জন্য ২ হাজার শিক্ষক রাস্তায় আন্দোলন করছেন।’ শিক্ষকদের দাবি দ্রুত পূরণের আহ্বান জানান তিনি।

এ ছাড়া চুন্নু রিজার্ভ চুরির সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের কারা জড়িত রয়েছে তা সংসদে অবহিত করতে অর্থমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এতে বাংলাদেশের কেউ জড়িত থাকলে সে বিষয়ে ৩০০ ধারায় অর্থমন্ত্রীর বিবৃতি দাবি করেন। তিনি জানতে চান, ‘কেন আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করার সিদ্ধান্ত নিতে দুই বছর সময় লাগল?’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত