শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

রেডিও মাইক্রোফোন এক্স বয়ফ্রেন্ডের মতো : মারিয়া নূর

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৫৩ পিএম

জনপ্রিয় উপস্থাপিকা ও মডেল মারিয়া নূর। মাঝেমধ্যে অভিনয়ে দেখা যায় তাকে। এক সময় উপস্থাপনা নিয়ে তুমুল ব্যস্ত ছিলেন তিনি। তবে সময়ের ব্যবধানে ক্যারিয়ার নিয়ে ভিন্নভাবে ভাবতে শিখেছেন তিনি। দর্শকপ্রিয়তা পাওয়ার পর তা অক্ষুণ্ন রাখার ব্যাপারে বেশ সচেতন এই তারকা। তাই তো এখন আর যেনতেন শো বা বিজ্ঞাপনচিত্রে দেখা যায় না। এই যেমন ভালো কোনো শোর প্রস্তাব পাচ্ছেন না বলেই বর্তমানে কোনো শোই তিনি হাতে নিচ্ছেন না। শুধুমাত্র করপোরেট শো নিয়ে ব্যস্ততা রয়েছে তার। এ প্রসঙ্গে মারিয়া বলেন, ‘আমি এমনিতেই অল্প অল্প করেই কাজ করি। এখন আরও বেশি বাছ-বিচার করে কাজ করছি। তাই হরমামেশা আমাকে উপস্থাপনায় দেখা যাচ্ছে না। বিশেষ কোনো আয়োজন নিয়েই ফিরব। এই যেমন আগামী মাস থেকে দুটি বড় আয়োজনের ভিন্নধর্মী শো শুরু হবে আমার। এরমধ্যে একটি হলো নাগরিক টিভির ‘মারিয়ার রান্নাঘর’। এটির প্রথম সিজনে অনেক বেশি সাড়া পেয়েছি। তাই দ্বিতীয় সিজন শুরু হচ্ছে। অন্য শোটি নিয়ে এখনই কথা বলতে চাই না। সব ঠিকঠাক হলেই জানাব।’
মারিয়াকে এতদিন নানা ধরনের অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করতে দেখা গেছে। যেমন সেলিব্রেটি শো, রান্নার শো, স্পোর্টস শো ইত্যাদি। কোন ধরনের শোতে নিজে সাচ্ছন্দ্যবোধ করেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমি মূলত উপস্থাপনা করতেই ভালোবাসি। তা যে ধরনের অনুষ্ঠানই হোক না কেন। যে অনুষ্ঠানের বৈশিষ্ট্য আমার ভালোলাগে সেটাই করি। তবে রান্নার অনুষ্ঠান আগে কখনো করিনি। তবে ব্যক্তিগতভাবে আমি রান্না করতে খুব ভালোবাসি। ‘মারিয়ার রান্নাঘর’ ছিল আমার নামে অনুষ্ঠান। এটি দেশের অন্য রান্নার অনুষ্ঠান থেকে একদমই আলাদা। তাই কাজটি করেছি।”
মারিয়া লাইমলাইটে আসেন এবিসি রেডিওর আরজে হিসেবে। কিন্তু টেলিভিশনে ব্যস্ত হওয়ার পরে তাকে আর রেডিওর পথ মাড়াতে দেখা যায়নি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এবিসি রেডিও দিয়েই আমার যাত্রা শুরু। ফলে রেডিও মাইক্রোফোনকে অনেক বেশি মিস করি। এটা খানিকটা এমন যে- এক্স বয়ফ্রেন্ডের মতো। তবে আমি এখন আর যেনতেন শো দিয়ে রেডিওতে ফিরতে পারি না। যদি স্পেশাল কিছু আমাকে করার প্রস্তাব দেওয়া হয়, তবে আমি অবশ্যই কাজটি করব।’
মারিয়ার এখানেই.কম, তাজা চা-সহ বেশ কিছু বিজ্ঞাপন জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এই অঙ্গনেও তাকে এখন নিয়েমিত পাওয়া যায় না কারণ ভালো কাজ ছাড়া তিনি করতে চান না। দরকার হলে ধৈর্য ধরে অপেক্ষায় থাকেন।
মারিয়ার অভিনেত্রী পরিচয় সবচেয়ে হালকা। তারপরও মিডিয়া সংশ্লিষ্টরা মনে করেন তিনি অভিনয়েও নিজেকে প্রমাণ করার দক্ষতা রাখেন। এ প্রসঙ্গে মারিয়ার সাফ উত্তর, ‘আমি নিজেই তো অভিনয়ে নিজেকে প্রমাণ করতে চাই না। ফলে এ নিয়ে আমার ভাবনা নেই। কোনো পরিকল্পনা থাকলে এরই মধ্যে আমি যেসব সিনেমা বা নাটকের অফার পেয়েছি সবই করতাম। আমি নিজেকে একজন ভালো উপস্থাপিকা হিসেবেই দেখতে চাই। তবে ভালো গল্পের কোনো আর্টিস্টিক ধরনের সিনেমার অফার পেলে আমি করতে চাই।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত