শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মন্ত্রিসভায় হজনীতি অনুমোদন এবারও বাড়ল হজের খরচ

আপডেট : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:১০ এএম

সরকার বিমানের ভাড়া ১০ হাজার টাকার বেশি কমিয়েও এবার হজের খরচ কমাতে পারেনি। সৌদি সরকার হজযাত্রীদের কর, বাড়ি ভাড়া ও সার্ভিস চার্জসহ অন্যান্য খরচ বাড়ানোয় হজ প্যাকেজের দাম বেড়েছে। গতকাল সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘হজ প্যাকেজ-২০১৯’ এবং ‘জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতি-২০১৯’ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সচিবালয়ে

সাংবাদিকদের জানান, সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্রথম প্যাকেজের আওতায় এবার হজের ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ লাখ ১৮ হাজার ৫০০ টাকা, যা গত বছর ছিল ৩ লাখ ৯৭ হাজার ৯২৯ টাকা এবং দ্বিতীয় প্যাকেজের আওতায় ৩ লাখ ৪৪ হাজার টাকা ধরা হয়েছে, যা গত বছর ছিল ৩ লাখ ৪৪ হাজার টাকা। সেই হিসাবে সরকারি ব্যবস্থাপনায় এবার হজের খরচ বেড়েছে ২০ হাজার ৫৭১ টাকা ও ১২ হাজার ৬৪১ টাকা। ২০১৭ সালে সরকারি ব্যবস্থাপনায় প্যাকেজ-১ এর ৩ লাখ ৬০ হাজার ২৮ টাকা এবং প্যাকেজ-২ এ ৩ লাখ ৪ হাজার ৯০৩ টাকা নির্ধারিত ছিল। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, এ বছর কোরবানির খচর ৪৭৫ রিয়াল থেকে বাড়িয়ে ৫২৫ রিয়াল করা হয়েছে। বেসরকারিভাবে বিমান ভাড়া ১ লাখ ২৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা গতবারের থেকে ১০ হাজার ১৯১ টাকা কম।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১০ আগস্ট হজ হতে পারে। এবার বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজে যেতে পারবেন। এ বছর যারা হজে যেতে চান, তাদের পাসপোর্টের মেয়াদ ২০২০ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত থাকতে হবে। আর্থিক ও শারীরিকভাবে সমর্থ ব্যক্তিদের পাশাপাশি মানসিকভাবে সুস্থ ব্যক্তিরা হজে যেতে পারবেন। আগে মানসিকভাবে সামর্থ্য না থাকলেও হজে যাওয়ার সুযোগ ছিল।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত