বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মিয়ানমারকে হারিয়ে এএফসির চূড়ান্ত পর্বে মেয়েরা

আপডেট : ০১ মার্চ ২০১৯, ০৭:৩১ পিএম

স্বাগতিক মিয়ানমারকে ১-০ গোলে হারিয়ে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবলের চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো এই আসরের চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করল বাংলাদেশ।

শুক্রবার মিয়ানমারের মানডালার থিরি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বাংলাদেশের পক্ষে একমাত্র গোলটি করেন মনিকা চাকমা।

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবলের বাছাই পর্বের দ্বিতীয় রাউন্ডে ‘বি’ গ্রুপে এখন সেরা হওয়ার মিশন গোলাম রব্বানী ছোটনের দলের। ৩ মার্চ চীনের বিপক্ষে গ্রুপ সেরা হওয়ার লড়াইয়ে মাঠে নামবে লাল-সবুজের মেয়েরা। বাংলাদেশের সঙ্গে চীনও নিশ্চিত করে ফেলেছে চূড়ান্ত পর্ব।

নিজেদের প্রথম ম্যাচে ফিলিপাইনকে ১০-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছিল তহুরা-আঁখিরা। মিয়ানমারকে হারালেই চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত, এমন সমীকরণ ছিল বাংলাদেশের সামনে। তবে মিয়ানমার স্বাগতিক বলে কিছুটা ভয় ছিল।

শক্তিশালী মিয়ানমার এদিন শুরু থেকেই বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল বাংলাদেশের চেয়ে। দারুণ সব আক্রমণে ব্যস্ত রেখেছিল বাংলাদেশের রক্ষণ। তবে আঁখি খাতুন, আনাই মগিনিদের নিয়ে গড়া রক্ষণ ভাঙতে পারেনি দলটি।

দ্বিতীয়ার্ধে বরং প্রাণ পেল বাংলাদেশের আক্রমণ ভাগ। স্বাগতিকদের হতাশায় ডুবিয়ে ৬৭ মিনিটে আদায় করে নেয় গোল। যে গোলে এক ম্যাচ হাতে থাকতেই নিশ্চিত হয়ে গেল চূড়ান্ত পর্ব।

মিয়ানমার নিজেদের প্রথম ম্যাচে চীনের কাছে ৫-০ গোলে হেরেছিল। টানা দুই ম্যাচ হেরে গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিশ্চিত হলো দলটির। অন্যদিকে বাংলাদেশের বিপক্ষে বিধ্বস্ত হওয়া ফিলিপাইন নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে ৭-০ গোলে হেরেছে চীনের বিপক্ষে। ফিলিপাইনও তাই ছিটকে গেছে আসর থেকে।

বাছাই পর্বের প্রথম পর্ব থেকে গ্রুপ সেরা ৬টি দল ও সেরা দুই রানার্সআপ নিয়ে হচ্ছে এই দ্বিতীয় পর্ব। বাংলাদেশ প্রথম পর্বে গ্রুপ সেরা হয়েই খেলছে দ্বিতীয় পর্বে। যেখানে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলছে আটটি দল।

প্রতি গ্রুপ থেকে দুটি করে দল চূাড়ান্ত পর্বের টিকিট পাবে। যেখানে স্বাগতিক থাইল্যান্ডের সঙ্গে রয়েছে আগের আসরের সেরা তিন দল- উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান। এ বছর ১৫ থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ৮ দলের চূড়ান্ত পর্ব। যেখানে সেরা তিনে থাকলে সুযোগ মিলবে পরের বছর অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপে খেলার।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত