রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ইমরান খান বললেন

তালেবানের স্বীকৃতি দিতেই হবে যুক্তরাষ্ট্রকে

আপডেট : ০৪ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৪৬ এএম

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, আগে বা পরে, আফগানিস্তানে তালেবান সরকারের স্বীকৃতি যুক্তরাষ্ট্রকে দিতেই হবে। গত শনিবার তুরস্কের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন টিআরটি ওয়ার্ল্ডকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একথা বলেন তিনি। খবর আল-জাজিরার।

ইমরান খান বলেন, ‘তালেবান গত ১৫ আগস্ট ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্র অনেকটা দ্বিধাদ্বন্দ্বে রয়েছে। আমেরিকানরা বলির পাঁঠা খুঁজছেন এবং অন্যায়ভাবে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে লক্ষ্যবস্তু করছেন।’

তালেবান কাবুলের দখল নিয়ে সরকার গঠন করলেও এখন পর্যন্ত কোনো দেশ আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের স্বীকৃতি দেয়নি। চীন তালেবানের প্রতি সমর্থন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে। আর পাকিস্তান ও রাশিয়া সমর্থন দিয়ে আসছে।

সমালোচকরা বলেছেন, আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারে বাইডেনের সিদ্ধান্তের পরই দেশটিতে পশ্চিমা সমর্থিত সরকার ভেঙে পড়ে। তীব্র চাপ সত্ত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের দীর্ঘতম যুদ্ধের অবসান ঘটিয়ে সৈন্য প্রত্যাহারে ৩১ আগস্ট সময়সীমা নির্ধারণ করেন বাইডেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানের রিজার্ভ ব্যবহারের (আনফ্রিজ) সুযোগ না দিলে দেশটি চরম বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির মধ্যে পড়বে। তাই যুক্তরাষ্ট্রকে এ সমস্যার সমাধানে এগিয়ে আসতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তালেবান সরকারকে পাকিস্তান একা স্বীকৃতি দিলে খুব বেশি ফলপ্রসূ হবে না। আঞ্চলিক শক্তিগুলো স্বীকৃতি দিলে একটি ভালো সমাধানের দিকে যাওয়া যাবে।’

প্রতিবেশী আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক এবং মানবিক সংকটের প্রভাব পাকিস্তানের ওপর পড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। এর মধ্যেই প্রায় ৩৫ লাখ আফগান শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে দেশটি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত