সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

২৫৭ টাকা নিয়ে মুম্বাই এসেছিলেন ‘টুয়েলভথ ফেল’ নায়িকা

আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৫:৩৬ পিএম

ছয় বছর আগে অর্থাৎ ২০১৮ সালে শোবিজে যাত্রা শুরু মেধা শংকরের। কিছুদিন কাজ করার পরেই পৃথিবী জুড়ে থাবা বসায় মহামারী করোনা। এসময় কাজ করতে না পেরে সর্বস্বান্ত হয়ে পড়েন অভিনেত্রী। দিনের পর দিন পার করেছেন খারাপ সময়।

অনেকটা সময় পেরিয়ে তার কাছে সুযোগ আসে ‘টুয়েলভথ ফেল’ সিনেমার। এতে আইপিএস মনোজ শর্মার স্ত্রী শ্রদ্ধা জোশীর চরিত্রে অভিনয় করে রীতিমতো তারকা বনে যান মেধা। রাশমিকা মান্দানা, তৃপ্তি ডিমরির পর রাতারাতি ‘ন্যাশনাল ক্রাশ’-এর তালিকায় যুক্ত হয় তার নাম।

সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মেধা শঙ্কর বলেন, ‘২০২০, বিশ্বব্যাপী সবার জন্যই কঠিন একটা বছর ছিল। আমার জন্যও তেমনই, কারণ আমি পুরোপুরি সর্বস্বান্ত হয়ে গিয়েছিলাম। আমার অ্যাকাউন্টে মাত্র ২৫৭ টাকা ছিল।’

ছোটবেলা থেকে চিকিৎসক হওয়ার ইচ্ছা ছিল মেধার। কিন্তু পরবর্তীতে ফ্যাশনের প্রতি তার আগ্রহ তৈরি হওয়ায় নয়াদিল্লির একটি কলেজে ফ্যাশন ম্যানেজমেন্ট নিয়ে ভর্তি হন। কলেজে পড়াকালীন একটি স্বল্পদৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য অডিশন দেন মেধা। অডিশনে নির্বাচিত হন। এরপর সেই চলচ্চিত্রের শুটিং শেষ হলেও তা আর মুক্তি পায়নি। সে সময় থেকেই অভিনয় নিয়ে ক্যারিয়ার গড়ার স্বপ্ন দেখতে শুরু করেন মেধা।

কলেজে থাকাকালীন একাধিক সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। অভিনয় নিয়ে জীবনে এগিয়ে যাবেন বলে ২০১৮ সালে নয়ডা থেকে মুম্বাই চলে যান। যদিও তার পর তিন বছর খুবই ঝড়ঝাপটা গেছে তার জীবনে। তার পর ২০২২ সালে বিধু বিনোদ চোপড়ার সিনেমাটির জন্য অডিশন দেন। সেসময়ই মেধা অনুমান করেছিলেন চরিত্রটা তিনিই করতে চলেছেন।

সে কথা জানিয়ে মেধা বলেন, ‘প্রথম স্ক্রিন টেস্টের সময়ই আমি আঁচ করেছিলাম এই চরিত্রটা আমার জন্য ছিল। অবশেষে, বিধু স্যারের কাছ থেকে একটি কল আসে যে আমাকে সিনেমার প্রধান নারী চরিত্র হিসেবে নির্বাচন করা হয়েছে।’

তিন বছর অভিনয় করেও নিজের পরিচিতি গড়ে তুলতে পারেননি মেধা। ২০২৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘টুয়েলভথ ফেল’ সিনেমাটি তাকে ক্যারিয়ারের মধ্যগগনে পৌঁছে দেয়। এই সিনেমাতে একটি গানও গেয়েছেন তিনি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত