রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সেঞ্চুরি ছাড়াই রেকর্ড ৫৩১ রান শ্রীলঙ্কার

আপডেট : ৩১ মার্চ ২০২৪, ০৪:৪৯ পিএম

চট্টগ্রামে দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে শ্রীলঙ্কা ৫৩১ রানে অলআউট হয়েছে। শ্রীলঙ্কার ৬ জন ব্যাটসম্যান পঞ্চাশোর্ধ ইনিংস খেলেছেন। তবে কেউ সেঞ্চুরি পাননি। টেস্টের এক ইনিংসে কোনো ব্যাটসম্যানের সেঞ্চুরি করা ছাড়া সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহের রেকর্ড এটি।

টেস্ট ইনিংসে সেঞ্চুরি ছাড়া সর্বোচ্চ রান এর আগে ছিল ৫২৪/৯। কানপুরে ১৯৭৬ সালের নভেম্বরে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে এ কীর্তি গড়েছিল ভারত। ওই ম্যাচে ভারতের ছয়জন ব্যাটসম্যান ফিফটি করেছিলেন। শ্রীলঙ্কার হয়েও ফিফটি করেছেন ৬ জন। এ নিয়ে তৃতীয়বার লঙ্কান ব্যাটাররা এ কীর্তি গড়েন।

শ্রীলঙ্কার হয়ে সেঞ্চুরির কাছে পৌঁছান তিন ব্যাটসম্যান। প্রথম দিন ৮৬ রানে আউট হন দিমুথ করুনারাত্নে। আরেকটু এগিয়ে কুশল মেন্ডিস থামেন ৯৩ রানে। তার চেয়ে এক রান কমে অপরাজিত থাকেন কামিন্দু মেন্ডিস।

ওভারের শেষ বলে এক রান নিয়ে স্ট্রাইকে থাকার চেষ্টা ছিল কামিন্দুর। তাইজুল ইসলাম বল করার সঙ্গে সঙ্গেই নন স্ট্রাইক প্রান্ত থেকে বেরিয়ে যান আসিথা ফার্নান্দো। কামিন্দুর স্ট্রেইট ড্রাইভ ধরে স্টাম্প ভাঙেন তাইজুল। তাতেই শেষ হয় চট্টগ্রাম টেস্টে শ্রীলঙ্কার প্রথম ইনিংস। পুরো ইনিংসে ১৫৯ ওভার ব্যাটিং করে শ্রীলঙ্কা।

প্রথম ইনিংসে কামিন্দু মেন্ডিস ৯২ রানে অপরাজিত থাকেন। এছাড়া অধিনায়ক ধনঞ্জয়া ৭০, দিনেশ চান্দিমাল ৫৯ ও নিশান মাদুশকা ৫৭ রান করেন। বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট শিকার করেন সাকিব আল হাসান। টেস্টে ২৩৬ উইকেট নিয়ে তিনি ছাড়িয়েছেন গ্যারি সোবার্সকে। ২টি উইকেট পান অভিষিক্ত হাসান মাহমুদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: (আগের দিন ৩১৪/৪) ১৫৯ ওভারে ৫৩১ (চান্দিমাল ৫৯, ধনঞ্জয়া ৭০, কামিন্দু ৯২*, প্রভাত ২৮, বিশ্ব ৬, আসিথা ০; খালেদ ২০-২-৭১-১, হাসান ২৪-৫-৯২-২, সাকিব ৩৭-৫-১১০-৩, মিরাজ ৪৬-৭-১৪৬-১, তাইজুল ৩২-৬-১০৬-০)।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত