বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ৪ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিমানে চুরি, অভিযোগ সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে

  • অভিযোগ উঠেছে, এয়ার ফোর্স ওয়ানে সফরকারী সাংবাদিকরা এসব স্মারক চুরি করেছেন
  • দামি বালিশের কভার, গ্লাস থেকে শুরু করে সোনার প্রলেপে কিনারা বাঁধানো প্লেট চুরি হয়েছে
আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০২৪, ০২:১৯ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সরকারি বিমান এয়ার ফোর্স ওয়ানে চুরির ঘটনা ঘটেছে। বিমানে সাংবাদিকদের জন্য নির্ধারিত স্থানে থাকা দামি স্মারক চুরি হয়েছে। আর এসব চুরির জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে সাংবাদিকদেরকেই।

রোববার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ফেব্রুয়ারিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিম উপকূলে সফরের পরে এয়ার ফোর্স ওয়ানে চেক দেখা গেছে যে বিমানের সাংবাদিকদের জন্য নির্ধারিত স্থান থেকে বেশ কয়েকটি স্মারক ও পণ্য গায়েব ছিল।

বিবিসি জানায়, চুরি হওয়া জিনিসের মধ্যে দামি ব্র্যান্ডের বালিশের কভার, গ্লাস থেকে শুরু করে সোনার প্রলেপে কিনারা বাঁধানো প্লেট রয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, এয়ার ফোর্স ওয়ানে সফরকারী সাংবাদিকরা এসব স্মারক চুরি করেছেন। এ জন্যও সতর্ক করা হয়েছে তাঁদের।

‘হোয়াইট হাউস করেসপন্ডেন্টস’ অ্যাসোসিয়েশন এ ঘটনায় সাংবাদিকদের সতর্ক করে বলেছে, এয়ার ফোর্স ওয়ান থেকে কোনো কিছু সঙ্গে নিয়ে যাওয়া নিষিদ্ধ।

এ বিষয়ে গত মাসেই হোয়াইট হাউসে কর্মরত সাংবাদিকদের একটি ই–মেইল পাঠায় এই অ্যাসোসিয়েশন। এতে বলা হয়, ওই ধরনের আচরণ খুবই খারাপ মনোভাবের প্রকাশ। প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সফরকারী সাংবাদিকদের এমন আচরণ অবশ্যই ত্যাগ করতে হবে।

ভয়েস অব আমেরিকার হোয়াইট হাউস প্রতিনিধি মিশা কোমাদোভস্কি বলেন, আমি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের সরকারি উড়োজাহাজ থেকে আনা স্মারকের একটি ‘ছোটখাটো’ সংগ্রহ গড়ে তুলেছি। তবে এ সংগ্রহের জন্য কোনো অন্যায় করিনি।

এয়ার ফোর্স ওয়ানকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের আকাশপথের দপ্তর হিসেবে বিবেচনা করা হয়। প্রেসিডেন্টের সরকারি এ বিমানে মাঝ আকাশে জ্বালানি নিতে পারে। এর ফলে জরুরি প্রয়োজনে সীমাহীন পথ পাড়ি দেওয়ার সক্ষমতা রয়েছে এয়ার ফোর্স ওয়ানের। এ ছাড়া এটি আকাশপথে হামলা প্রতিরোধেও সক্ষম।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত