বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

চা-ডিম-ভাত কি পুনরায় গরম করে খান?

আপডেট : ০২ মে ২০২৪, ০৫:৩৮ পিএম

বর্তমান ব্যস্ত সময়ে প্রতিবেলায় রান্না করা বেশ মুশকিল। তাই অনেকেই একবারে দুই বেলার রান্না করে রাখেন ও পরে গরম করে খান। অনেকে আবার না চাইলেও খাবার বেশি থেকে যাওয়ার কারণে গরম করে খেতে হয়।

কিছু খাবার আছে যেগুলো পুনরায় গরম করার সঙ্গে সঙ্গেই তাতে বিষক্রিয়া শুরু হয় এবং নানা রকম রোগের সৃষ্টি করে। চুলায় গরম করাও ক্ষতিকর আবার ওভেনে সেই ক্ষতির পরিমাণ আরও বেড়ে যায়। তার মধ্যে চা, ডিম ও ভাত অন্যতম।

চা: বিশ্বের জনপ্রিয় পানীয়গুলোর একটি চা। অনেক সময় কাজের ব্যস্ততায় চা বানিয়ে উষ্ণ থাকতেই তা পান করা হয়ে ওঠে না। ঠান্ডা হয়ে গেলে সে চা অনেকেই গরম করে খেয়ে থাকেন। এটা করা যাবে না। চা দ্বিতীয়বার গরম করলে তাতে অ্যাসিডের মাত্রা বেড়ে যায়, যা পান করলে বদহজম বা পাকস্থলীর সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ডিম: ডিমকে বলা হয় ‘গরিবের প্রোটিন’। প্রোটিনের ‘পাওয়ার হাউস’ ডিম অত্যধিক তাপমাত্রায় পুনরায় গরম করলে বিষক্রিয়ার সৃষ্টি হতে পারে। কেননা, পুষ্টি উপাদান নষ্ট হয়ে তা ‘টক্সিক’ হয়ে পড়ে।

ভাত: ভাতে থাকে ‘স্পোর্স’ নামক ব্যাক্টেরিয়ার বীজগুটি থাকে, যা রান্নার পরেও নষ্ট হয় না। রান্না করা ভাত ঘরের তাপমাত্রায় রেখে দিলে এর স্পোর্স থেকে ব্যাক্টেরিয়ার বিস্তার ঘটে। আর পুনরায় গরম করার সঙ্গে সঙ্গে তা বিষাক্ত হয়ে বমি ও ডায়রিয়ার সৃষ্টি করে।

পুষ্টি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোনো খাবারই পুনরায় গরম করে খাওয়া ঠিক না। খাবার দ্বিতীয়বার গরম করার সঙ্গে সঙ্গেই এর পুষ্টিগুণ হারানো শুরু করে। কারণ খাবার পুনরায় গরম করার অর্থ যে, যে তাপমাত্রায় খাবারটি রান্না হয়েছে, সেটা তাপমাত্রার ওপর আবার তাপ প্রয়োগ করা।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত