শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

হোয়াটসঅ্যাপে যা করলে অ্যাকাউন্ট হারাতে পারেন

আপডেট : ২৪ নভেম্বর ২০১৮, ১২:১৩ পিএম

কয়েক বছর ধরে হোয়াটসঅ্যাপ যোগাযোগের একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যমে পরিণত হয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক যোগাযোগ থেকে শুরু করে পরিবার এবং বন্ধু-বান্ধব সবার সঙ্গে চ্যাটিং করার জনপ্রিয় অ্যাপে পরিণত হয়েছে এটি।

তবে সবারই এটা জেনে রাখা ভালো, হোয়াটসঅ্যাপের অপব্যবহার করা যাবে না। অন্যথায় হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ কোনো নোটিস ছাড়াই আপনার অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দিতে পারে। অনেকেই হয়তো জানেন না হোয়াটসঅ্যাপে কী কাজ করলে অ্যাকাউন্ট ব্লক হতে পারে।

হোয়াটসঅ্যাপে যেসব কাজ করলে অ্যাকাউন্ট বন্ধ হতে পারে তার একটা তালিকা দিয়েছে গেজেটস নাউ-

‌১. হোয়াটসঅ্যাপের নীতি ও শর্ত অনুযায়ী অবৈধ, ভীতিকর, হুমকি, নাজেহাল এবং বিদ্বেষমূলক বার্তা দিলে আপনার অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ হতে পারে।

২. কোনো ধরনের অসহিষ্ণুতা বা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে উস্কানি দিলে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দিতে পারে।

৩. কারো সঙ্গে ভুয়া অ্যাকাউন্টে চ্যাটিং করলে।

৪. যিনি আপনার অ্যাকাউন্ট তালিকায় নেই অথচ তাকে বার বার বার্তা দিয়ে বিরক্ত করলে।

৫. অ্যাপ কোড পরিবর্তনের চেষ্টা করলে হোয়াটঅ্যাপ আপনাকে নিষিদ্ধ করতে পারে।

৬. হোয়াটসঅ্যাপে অন্য ব্যবহারকারীকে ভাইরাস বা ম্যালওয়্যার পাঠালে অ্যাকাউন্ট ব্লক করা হতে পারে।

৭. হোয়াটসঅ্যাপের সার্ভার হ্যাক করার চেষ্টা করলে বা অন্য ব্যবহারকারীর তথ্য অবৈধভাবে সংগ্রহের চেষ্টা করলে আপনার অ্যাকাউন্ট হারাতে পারেন।

৮. হোয়াটসঅ্যাপ প্লাস ব্যবহার করলেও আপনি হোয়াটসঅ্যাপ থেকে নিষিদ্ধ হতে পারেন। কোম্পাটি তার ওয়েবসাইটে স্পষ্টভাবে উল্লেখ করেছে- হোয়াটসঅ্যাপ প্লাস একটি অ্যাপ্লিকেশন- যেটি হোয়াটসঅ্যাপ দ্বারা পরিচালিত কিংবা হোয়াটসঅ্যাপের মালিকানার নয়।

৯. বেশ কয়েকটি ইউজার দ্বারা আপনার অ্যাকাউন্ট ব্লক করা থাকলে হোয়াটসঅ্যাপ থেকে আপনি নিষিদ্ধ হবেন।

১০. অন্য কোনো অ্যাকাউন্ট বা গ্রুপ থেকে আপনার অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে হোয়াটসঅ্যাপে রিপোর্ট করতে পারবে। আর রিপোর্টের সত্যতা মিললে আপনার অ্যাকাউন্ট অচল করে দেয়া হতে পারে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত