রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সমালোচনাকে আশীর্বাদ হিসেবে নিয়েছি

আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:২৩ পিএম

কামরুজ্জামান রাব্বি। সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ‘আমি তো ভালা না’ গানের মাধ্যমে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। তার সাক্ষাৎকার নিয়েছেন পান্না।

‘আমি তো ভালা না’ গানটি ভাইরাল হওয়ার পর জীবনে কি কোনো পরিবর্তন এসেছে?

অনেকদিন ধরে গান করলেও ‘আমি তো ভালা না’ গানটি আমার জীবনের টার্নিং পয়েন্ট। আমি একটা গানের প্রতিযোগিতা থেকে এসেছি, তবে আমাকে অনেক বেশি জনপ্রিয়তা দিয়েছে এই গানটি। তবে নিজেকে নিজে কোনো সেলিব্রিটি ভাবি না। আগেও যেমন ছিলাম এখনো তেমন থাকতে চাই। তবে ব্যস্ততা একটু বেড়েছে।

গানটি করার সময় কি ভেবেছিলেন এটি এতটা ভাইরাল হবে?

না আমি একদমই ভাবিনি। কোনোরকম প্রিপারেশনও ছিল না। চা বাগানে ঘুরতে যাওয়া এবং ঘুরতে গিয়ে গানটি মোবাইল দিয়ে ভিডিও করা। তবে গানের কথাগুলো ভালো লেগেছিল, মনে হয়েছিল মানুষ হয়তো পছন্দ করবে।

গানের সুরকার-গীতিকার নিয়ে কিছুটা সমালোচনা হয়েছে ...

দেখুন, সমালোচনা তো থাকবেই। এই বিষয় নিয়ে আমার ফেইসবুকে কথা বলেছি। কয়েকটা নিউজ পোর্টালে নিউজও হয়েছে। আজ কিন্তু সেই সমালোচনাগুলো ঢাকা পড়ে গেছে। এর আগেও কিন্তু অনেকের গানে এমনটা সমালোচনা হয়েছে। আলোচনা-সমালোচনা আজীবন থাকবেই, তবে এই সমালোচনাকে আশীর্বাদ হিসেবে নিয়েছি।

‘ভালা না ২’, ‘পিরিতের জ্বালাতন’ গানগুলো প্রকাশ হয়েছে। কেমন সাড়া পেলেন?

প্রথম কথা হলো আমি প্রত্যেকটা গান করি আত্মতৃপ্তির জায়গা থেকে। কারণ, নিজের ভালো না লাগলে সেই গানটা আরেকজনের ভালো লাগবে না। ‘আমি তো ভালা না’র কথাগুলো শুধু আমি কেন, প্রত্যেকের ভালো লেগেছে। তারপর ‘আমি তো ভালা না-২’ ছিল ঐ গানটির সিক্যুয়াল।  তারপর গেয়েছি ‘পিরিতির এত জ্বালাতন’ গানটি। অনেক প্রাচীন একটা গান। অনেকদিন ধরে ইচ্ছা ছিল এই গানটা কাভার করার। সেই ইচ্ছা পূরণ হয়েছে এবং শ্রোতারা ভালোভাবেই নিয়েছে।

আপনার গানগুলোতে ব্যর্থতার সুর প্রকট ...

এর সবচেয়ে বড় কারণটা হচ্ছে- প্রত্যেকটা মানুষেরই না পাওয়ার বেদনা থাকে। সেটা কোনো মানবিক প্রেম নাও হতে পারে। সৃষ্টিকর্তাকে না পাওয়ার যে আক্ষেপ, সেটা থাকতে পারে। সেই জায়গা থেকেই আমি এটা ভাবার চেষ্টা করেছি। ঐ গানগুলোই মানুষকে বেশি শুনছে।

বর্তমান ব্যস্ততা কী নিয়ে?

ছায়ানটে গান শিখছি। ইউডাতে মিউজিকের ওপর অনার্স করছি। পাশাপাশি শাস্ত্রীয় সংগীতে তালিম নিচ্ছি গুরু ডক্টর শেখর ম-লের কাছে। এছাড়া ‘আহত ফুলের গন্ধ’ সিনেমাতে গান গেয়েছি। এটি আগামী ৮ মার্চ মুক্তি পাবে। এরপর ‘সাঁতার’ নামের একটি সিনেমায় দুটি গান করেছি। মূলত একজন পারফরমার ও গানের শিক্ষক হয়ে সারাটা জীবন কাটাতে চাই।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত