শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

শূন্যতার শঙ্কায় বিরোধী দলে জাপা : কাদের

আপডেট : ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০২:২৮ এএম

এক ধরনের ‘শূন্যতা সৃষ্টি হওয়ার’ আশঙ্কা দেখা দেওয়ায় জাতীয় পার্টি বিরোধী দলে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের। গতকাল রবিবার রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে একটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

সংসদের বিরোধীদলীয় উপনেতা কাদের বলেন, ‘আমাদের প্রতিদ্বন্দ্বীরা যেহেতু সংসদে সেভাবে আসতে পারেননি, যে কোনো কারণেই হোক। ফলে সংসদীয় গণতন্ত্রে জনগণের যেই প্রত্যাশা, আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান উঠে আসা সেই জায়গায় একটি বড় ধরনের শূন্যতা সৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছিল। সে কারণেই আমরা বিরোধী দলের ভূমিকায় এসেছি।’ তিনি বলেন, বিরোধী দলে এসেছি মানে এই নয়, আমরা কোনো পাতানো খেলা খেলতে এসেছি। কিংবা আমাদের গৃহপালিত বিরোধী দল বলতে হবে। অন্যান্য বিরোধী দল যে কাজ করত বা জনগণ যা প্রত্যাশা করে তাই করব। জিএম কাদের বলেন, আমরা সরকারের সহায়ক হিসেবে রাজনীতি করেছি। সহায়ক হিসেবেই আমরা সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকায় থাকব। সরকারের দুর্নীতি তুলে ধরব। কয়জন আছি, কয়জন কথা বললাম সেটা বিষয় নয়। কতটুকু কথা বলতে পারলাম সেটা হলো বড় কথা। তার চেয়েও বড় কথা হলো, সরকার কতটুকু মানলেন। বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টকে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘আমরা কেউ সুযোগ পেলে যে তার সদ্ব্যবহার করি না এ কথা অনেকেই বুক ফুলিয়ে বলতে পারবেন না। এটাই বাস্তবতা।’ আন্দোলন করে বড় বড় কথা বলে মারামারি করে আগুন জ্বালিয়ে সরকার পতন করা যায় না মন্তব্য করে তিনি বলেন, এটা ২০১৪ সালে পরিষ্কার বোঝা গেছে। শুধু নির্বাচনের মাধ্যমেই সরকার পরিবর্তন করা সম্ভব।

অনুষ্ঠানে খন্দকার দেলোয়ার জালালী রচিত ‘রক্তাক্ত রাখাইন’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেন জিএম কাদের। রোহিঙ্গা সমস্যাকে সারা বিশ্বের সমস্যা দাবি করে তিনি বলেন, তাদের জায়গা দেওয়ায় সারা বিশ্ব প্রশংসা করেছে। এটা এখন আমাদের ঘাড়ে বড় বোঝা। এর সমাধানেও সারা বিশ্বকে এগিয়ে আসতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য ফয়সাল চিশতী, অধ্যাপিকা মাসুদা এম রশিদ চৌধুরী, ডিআরইউ সভাপতি ইলিয়াস হোসেন প্রমুখ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত