শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মেলায় একান্ত সাক্ষাৎকারে আলী ইমাম

‘যেন স্বপ্ন দেখাতে শেখায়’

আপডেট : ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৩:০৩ এএম

শিশু সাহিত্যিক আলী ইমাম গতকাল ছিলেন মেলায় তার সঙ্গে কথা বলেছেন মদিনা জাহান রিমি

 

দেশ রূপান্তর : এবার আপনার কতটি বই মেলায় থাকছে?

আলী ইমাম : এবারের বইমেলায় আমার ৫০টি বই বের হবে। আজ দুটো বই মনন প্রকাশ এবং দেশজ প্রকাশন থেকে প্রকাশিত হয়েছে।

দেশ রূপান্তর : এবারের বইমেলার আয়োজন নিয়ে আপনি সন্তুষ্ট?

আলী ইমাম : জাতীয় গ্রন্থকেন্দ্রের একটা বিভাগ থাকতে পারে। এই বিভাগ বই বের করার আগে বাক্য, বানানÑ এসব ঠিক আছে কি না তা দেখবে। বিশেষ করে শিশুসাহিত্যের ক্ষেত্রে। তবে এই বিভাগ কিন্তু লেখকদের চিন্তা-চেতনা ‘সেন্সর’ করবে না। আমাদের দেশে এখন লেখালেখি খুব সহজ মনে করে অনেকে। পৃথিবীর অন্য দেশে বই বের করতে গেলে কর্মশালার মাধ্যমে প্রস্তুতি নিয়ে বই প্রকাশিত হয়।  আমাদের দেশে এরকম কোনো পদ্ধতি নেই। এমনকি একটা পা-ুলিপি প্রকাশের উপযুক্ত কি না তা ফিল্টার করার জন্য লোক থাকতে হবে।

দেশ রূপান্তর : পাঠকের আগ্রহ কেমন দেখছেন?

আলী ইমাম : বিজ্ঞান বেগ দিয়েছে কিন্তু আবেগ কেড়ে নিয়েছে। বইয়ের প্রতি আবেগ কিছুটা কমে গেছে বলে মনে হয়। তবে বইমেলা মানেই যে শুধু বই কিনতে হবে তা নয়, মেলার মাধ্যমে লেখক, প্রকাশক ও বইপ্রেমীদের যে মিলনমেলা তা এক কথায় অসাধারণ। কে কী করছে, কী ভাবছে তা আদান-প্রদান হচ্ছে মেলায়। এজন্য আমার মতে পাঠকের আগ্রহ আগের চেয়েও বেড়েছে। এবারের বইমেলা শুরু থেকেই প্রাণবন্ত। তাছাড়া অনেকে এখন শুধু ঘুরতে আসে, একুশে ফেব্রুয়ারির পর বই কেনার হার বাড়ে।

দেশ রূপান্তর : তরুণদের বই পড়া ও লেখার জন্য কীভাবে উৎসাহিত করবেন?

আলী ইমাম : আমাদের দেশে বাচ্চাদের ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার হতে বলে অভিভাবক।  লেখক হতে বলে না। কারণ তারা ভাবে, তাদের সন্তান লেখক হয়ে জীবনযাপনের জন্য পর্যাপ্ত অর্থ উপার্জন করতে পারবে না। সবারই বাণিজ্যিক চিন্তা। অভিভাবকই পারে সন্তানকে অনুপ্রাণিত করতে।

দেশ রূপান্তর : আমাদের দেশে বিশ্বমানের লেখক আছে?

আলী ইমাম : অনুবাদ হয়নি বলে হাসান আজিজুল হক নোবেল পুরস্কার পাননি, ঠিকমতো অনুবাদ করা গেলে তিনি নোবেল পুরস্কার পেতেন। বিশ্বমানের লেখা অবশ্যই আছে। কিন্তু বিশ্বের কাছে তুলে ধরার ব্যবস্থা নেই।

দেশ রূপান্তর : শিশুদের জন্য কেমন বই দরকার?

আলী ইমাম : বই যেন স্বপ্ন দেখাতে শেখায় এমন বই দরকার শিশুদের জন্য।

দেশ রূপান্তর : ধন্যবাদ আপনাকে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত