সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি

সংবাদমাধ্যম ও গণতন্ত্রকে একত্রে চলতে হয়

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৫:০৯ এএম

গণতন্ত্র ও সংবাদমাধ্যম পরস্পরকে হাত ধরাধরি করে চলতে হয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘সাংবাদিকরা মুক্তিযুদ্ধ ও দেশপ্রেমের চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে দেশ গঠনে সচেষ্ট হবে।’ গতকাল মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী

সমিতি মিলনায়তনে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘একটি গণতান্ত্রিক, স্বাধীন ও সার্বভৌম দেশে সংবাদমাধ্যমের অনুপস্থিতির কথা ভাবাই যায় না। কেননা, স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র কাঠামোয় গণতন্ত্র ও সংবাদমাধ্যম পরস্পরকে হাত ধরাধরি করে চলতে হয়। সঙ্গত কারণেই সাংবাদিকতাকে রাষ্ট্রের চতুর্থ স্তম্ভ হিসেবে মূল্যায়ন করা হয়।’ তিনি বলেন, ‘সমাজের অসঙ্গতি দূরীকরণ ও সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে সাংবাদিকতা তথা গণমাধ্যমের ভূমিকা অনস্বীকার্য।’

সাংবাদিক মেহেদী হাসান ডালিমের ‘আইনে তারুণ্য’ সঙ্কলন গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি আরও বলেন, ‘আইন-আদালত, আইন-শৃঙ্খলা, মানবাধিকার এবং আইনি সেবা সংক্রান্ত তথ্য আইনের বিভিন্ন দিক সাংবাদিকতার মাধ্যমে উঠে আসে। সাংবাদিকরা সাধারণ জনগণ ও বিচারপ্রার্থী জনগণের আশা-আকাক্সক্ষা, প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি এবং লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে সংশ্লিষ্ট সবাইকে সচেতন করার গুরুদায়িত্ব পালন করেন।’

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, বাংলাদেশ ল’ টাইমসের প্রকাশক অ্যাডভোকেট সমরেন্দ্র নাথ গোস্বামী, অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি ডটকমের প্রকাশক এসএম জাহিদ হাসান, ল’ রিপোর্টার্স ফোরামের (এলআরএফ) সভাপতি সাঈদ আহমেদ খান প্রমুখ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত