রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ভারতকে নিউ জিল্যান্ডের নাস্তানাবুদ

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৬:১৬ পিএম

দাপটের সঙ্গে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ নিজেদের করে নেওয়া ভারতকে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচেই উল্টো পিঠ দেখিয়েছে নিউ জিল্যান্ড। রোহিত শর্মাদের নাস্তানাবুদ করে তুলে নিয়েছে বিশাল এক জয়।

ওয়েলিংটনে বুধবার ভারতকে ৮০ রানে হারায় নিউ জিল্যান্ড। ২২০ রান তাড়া করে ১৩৯ রানে গুঁড়িয়ে যায় টিম ইন্ডিয়া। এই জয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ এগিয়ে গেল কিউইরা।

রানের দিক থেকে টি-টোয়েন্টিতে এটি ভারতের সবচেয়ে বড় ব্যবধানে হার। এর আগে তাদের সর্বোচ্চ রানের (৪৯) হারটি ছিল অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে, ২০১০ সালে।

ওয়েস্টপ্যাক স্টেডিয়ামে টসে জিতে নিউ জিল্যান্ডকে প্রথমে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানান ভারতের অধিনায়ক রোহিত। রান তাড়ার সিদ্ধান্তটি ভুল প্রমাণিত হলো বৈকি।

ওয়ানডে সিরিজে বিশ্রামের পর সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে ভারত একাদশে ফিরলেন রিশাভ পান্ত। ফলে একই ম্যাচে খেললেন দলটির তিন উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান (মহেন্দ্র সিংধোনি, দিনেশ কার্তিক ও পান্ত)। ১১ খেলোয়াড়ের মধ্যে আটজনই ব্যাটসম্যান। এরপরও ২০ ওভার পুরো খেলতে পারেনি অতিথি দল।

রান তাড়া করতে নেমে চার বল বাকি থাকতে গুটিয়ে যায় ভারতীয় ইনিংস। একটু লড়াই দেখা গেছে ধোনির ব্যাটেই। ৩১ বলে পাঁচ চার ও এক ছক্কায় সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন সাবেক অধিনায়ক। অন্যদের মধ্যে শিখর ধাওয়ান ২৯, বিজয়শংকর ২৭ এবং ক্রুনাল পান্ডিয়া ২০ করেন।

নিউ জিল্যান্ডের বোলারদের মধ্যে চার ওভারে মাত্র ১৭ রানে তিন উইকেট নেন টিম সাউদি। দুটি করে উইকেট নেন লকি ফার্গুসন ও মিচেল সান্টনার।

এর আগে ওপেনার টিম সেইফার্টের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে দুশো রানের গণ্ডি টপকায় নিউ জিল্যান্ড। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২১৯ রান। ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে এটাই তাদের সর্বোচ্চ সংগ্রহ।

কলিন মুনরোর সঙ্গে  ৮৬ রানের জুটি গড়ে দলকে দারুণ একটি শুরু এনে দেন সেইফার্ট। এই জুটিতে ফাটল ধরান ক্রুনাল পান্ডিয়া। তার বলে শঙ্করের হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ২০ বলে ৩৪ রান করেন মুনরো।

ব্যাটে ঝড় তুলে দলীয় ১৩৪ রানে খলিল আহমেদের শিকার হন সেইফার্ট। এর ৪৩ বলে করেন ৮৪ রান। ইনিংসটিতে রয়েছে সাত চার ও ছয় ছক্কা!

২২ বলে ৩৪ রান করেন অধিনায়ক ক্যান উইলিয়ামসন। অন্যদের মধ্যে সব টেইলর ২৩ ও স্কট কুগেলেইন অপরাজিত ২০ রান করেন।

ম্যাচ সেরা হন কিউই ওপেনার সেইফার্ট।

সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি হবে শুক্রবার, অকল্যান্ডে।