শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মোদিকে কালো পতাকা দেখাল আসামের ছাত্ররা

আপডেট : ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০২:২৪ এএম

জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে গতকাল শনিবার আসাম সফরে গিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিক্ষোভের মধ্যে পড়েন বলে জানিয়েছে এনডিটিভি। রাজ্যের গুয়াহাটি থেকে গাড়িতে করে যাওয়ার সময় মোদিকে কালো পতাকা দেখায় আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়নের শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা এ সময় ‘গো ব্যাক মোদি’, ‘স্ক্র্যাপ সিটিজেনশিপ বিল’-এর মতো স্লোগান দেয়।

নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের (এনআরসি) প্রতিবাদে অনেকদিন ধরেই আসাম ও উত্তর-পূর্ব ভারতে বিক্ষোভ চলছে। বিতর্কিত বিলটি বাতিলের দাবিতে আসামের পাশাপাশি সেভেন সিস্টার্সের অন্য রাজ্যগুলোতেও বিক্ষোভ চলছে। অরুণাচল, নাগাল্যান্ডসহ ত্রিপুরাতেও প্রতিবাদ সমাবেশ করে বিল-বিরোধীরা। যে কোনো মূল্যে বিলটি প্রতিহত করার ঘোষণা দেন তারা। চলমান বিক্ষোভের মধ্যেই গত শুক্রবার গুয়াহাটি পৌঁছান নরেন্দ্র মোদি। বিমানবন্দর থেকে রাজভবনে যাওয়ার পথে বিক্ষুব্ধ আন্দোলনকারীদের সামনে পড়েন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে কেন্দ্র করে কামরূপ জেলা প্রশাসন বেশ কয়েকটি এলাকায় ১৪৪  জারি করে। এ সময় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ লাঠিপেটা ও শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করে।

গুয়াহাটির সমাবেশে নাগরিকত্ব বিল নিয়ে ইচ্ছাকৃতভাবে উত্তর-পূর্বের মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে বলে দাবি করলেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় মোদি বলেন, ‘আগের সরকার এনআরসির প্রয়োগ নিয়ে উদাসীন ছিল। আমরা এই এনআরসি প্রয়োগে তৎপর। সুপ্রিম কোর্টের তত্ত্বাবধানে রয়েছে গোটা বিষয়টি। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নির্ধারিত আইন মেনে এনআরসি প্রয়োগ করাই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য।’

এনআরসি বিল বাতিলের দাবিতে ও মোদির সফরের বিরোধিতা করে গতকাল শনিবার আরও বৃহত্তর বিক্ষোভের ডাক দেয় তারা। অল আসাম স্টুডেন্টস ইউনিয়নের এক নেতা বলেন, ‘নিজেদের ভোটব্যাংকের স্বার্থে আসামের মানুষের অধিকার খর্ব করে মোদি সরকার সংশোধিত নাগরিকত্ব বিল বাস্তবায়নের জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে। কিন্তু আমরা তা হতে দেব না।’

সর্বশেষ সংশোধনীতে কয়েক লাখ বাঙালির নাগরিকত্ব বাতিল করা হয়। আবার অনেক স্থানীয় বাসিন্দার নামও বাদ পড়ে যায় তালিকা থেকে। বাদ পড়াদের মধ্যে সাবেক এমপিও রয়েছেন। গতকাল ত্রিপুরা যান মোদি। গত শুক্রবার থেকেই ত্রিপুরাতেও চলছে বিক্ষোভ। মোদির সফরকে কেন্দ্র করে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে ত্রিপুরা প্রশাসন। বিল নিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশের মধ্যেই সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত