বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

তিন দিনের ম্যাচ বাঁচানোও দায় বাংলাদেশের

আপডেট : ১২ মার্চ ২০১৯, ০৪:৪০ এএম

টেস্ট নেমে এলো তিন দিনে। কিন্তু কোনো কিছুই এখন আর বাংলাদেশের পক্ষে যাচ্ছে না। এমনকি নিউজিল্যান্ডের আবহাওয়া অফিসের পূর্বাভাসও না। ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভে মঙ্গলবার মানে আজকের দিনটা থাকবে ঝকঝকে। বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। বাংলাদেশ দল এবং তাদের সমর্থকদের তাই বুঝি দ্বিতীয় টেস্টের শেষ দিনে বৃষ্টির জন্য প্রার্থনায় বসার প্রেরণাও নেই। তিন দিনে নেমে আসা টেস্টই এখন যে বাংলাদেশের বাঁচানো দায়!

ম্যাচ হার মানে সিরিজ হার। তখনো বাকি থাকবে আরেকটি ম্যাচ। কিন্তু রস টেইলরের মতো ব্যাটসম্যানকে যদি তিন বলের মধ্যে দুবার জীবন দিয়ে দেন তাহলে আপনি বাঁচবেন কীভাবে? মারকাটারি ২০০ করে থেমেছেন টেইলর।

আগের দিন যে বেসিন রিজার্ভের গ্রিন টপ ছিল বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের জন্য বদ্ধভূমি পরের দিন স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের জন্য ওটাই ব্যাটিং স্বর্গ! কী ব্যাটিংটাই না করল তারা চ্যালেঞ্জিং এক জয়ের জন্য। তাদের রান উঠল ওয়ানডের মতো। বাংলাদেশি অনভিজ্ঞ বোলারদের উঠল নাভিশ্বাস। শেষ দিনের ৯৮ ওভার দুর্গম মনে হচ্ছে খুব। প্রথম ইনিংসে ২১১ রানে অল আউট। জবাবে, ২ উইকেটে ৩৮ রান নিয়ে গতকাল শুরু হয় নিউজিল্যান্ডের। ৮৪.৫ ওভারে ৫.০৯ রান রেটে ৬ উইকেটে ৪৩২ রান নিয়ে তাদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা। দিনের বাকি ২৩ ওভারে ৮০ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে প্রমাদ গুনছে বাংলাদেশ। টেস্টের সকাল সবসময় একটু বেশি চাপের। এখনো ১৪১ রানে পিছিয়ে থাকা বাংলাদেশের জন্য এখন আরও বেশি চাপের। তামিম ইকবাল (৪), সাদমান ইসলাম (২৯) ও মুমিনুল হক (১০) আউট। মোহাম্মদ মিঠুন ২৫ ও সৌম্য সরকার ১২ রানে অপরাজিত। বাংলাদেশকে ড্র করতে হলেও এই ম্যাচে শুধু প্রাণ পণ করলে চলছে না। অন্তত নিউজিল্যান্ডে তাদের সব সফরের অভিজ্ঞতা তাই বলছে।

বিশ্বের অন্যতম দুই সেরা ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন আর রস টেইলর সোমবার মাঠে নামলেন আগ্রাসন নিয়ে। ১০ রান নিয়ে অধিনায়কের শুরু। ১৯ নিয়ে শুরু টেইলরের। কিন্তু আর মাত্র ১ রান যোগ করেই টেইলর দুটি সুযোগ দিলেন। বাংলাদেশ ক্যাচ নিতে পারলে গল্পটা ভিন্নও হতে পারত। ক্যাচ মিস মানে তো ম্যাচ মিস। ওই জীবন পেয়ে উইলিয়ামসনের সঙ্গে টেইলরের ১৭২ রানের জুটি। নিজে ১৮তম সেঞ্চুরি করে গুরু মার্টিন ক্রোকে ছাড়িয়ে নিউজিল্যান্ডের সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির মালিক। তৃতীয় ডাবল সেঞ্চুরি। আবার উইলিয়ামসন ৭৪ রনে বিদায় নেওয়ার পর হেনরি নিকোলসের সঙ্গে ২১৬ রানের পার্টনারশিপ। ঠিক ২০০ টেইলরের। নিকোলস ১০৭।

বাংলাদেশি ওপেনার তামিম ইকবাল এদিন ট্রেন্ট বোল্টকে ইনিংসের প্রথম বলেই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে শুরু করেছিলেন। পরের বলে ব্যাট-প্যাডের ফাঁকতালে বোল্ড। আরও দুটি উইকেট পড়ল। কিন্তু বাংলাদেশকে পোড়াচ্ছে বোলিং। এমনিতে এই সময়ের সেরা টেস্ট দলের অন্যতম নিউজিল্যান্ড। তাদের মাটিতে খেলা। সেরা পেস অ্যাটাক তাদের। বাংলাদেশের তিন পেসার মোস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ রাহী ও ইবাদত হোসেন মিলে খেলেছেন ১৭ টেস্ট। যেখানে উইলিয়ামসন ও টেইলরের টেস্ট খেলার যোগফল ১৬৪! এরপরও যদি টেইলরের ক্যাচ এভাবে ছেড়ে দেয় ফিল্ডাররা, তাহলে?

দিনশেষে দুঃখিত চেহারার তামিম ওই ক্যাচের কথা টেনেই আফসোস করছিলেন, ‘এ বড় দুঃখজনক। আমরা এক ওভারে একজনেরই ক্যাচ ছাড়লাম দুবার। যে কি না পরে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে বসল। ওরা ওভারে পাঁচের মতো করে রান তুলেছে। আমাদের এসব কষ্ট দিচ্ছে।’

সোমবার ৭৩ ওভারে ৩৯৪ রান উঠিয়েছে কিউইরা। বাংলাদেশের রান তোলার তাড়া নেই। একটাই লক্ষ্য টিকে থেকে ড্র করা। তিন দিনে নেমে আসা ম্যাচও যদি এভাবে হারতে হয় তাহলে বাকি থাকে আর কি?

আসলে কী ঘটতে যাচ্ছে সেই জবাব অবশ্য মঙ্গলবার বেসিন রিজার্ভেই আছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত