শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

পুলিশ ফাঁড়িতে যুবকের মৃত্যু

রিমান্ড শেষে কারাগারে কনস্টেবল হারুন

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৫৭ এএম

সিলেট নগরীর বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে যুবক রায়হান আহমদের (৩৪) মৃত্যুর মামলায় গ্রেপ্তার পুলিশ কনস্টেবল (সাময়িক বরখাস্ত) হারুনুর রশিদকে দুই দফা রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গতকাল রবিবার দ্বিতীয় দফায় ৩ দিনের রিমান্ড শেষে মামলার তদন্তকারী সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) তাকে আদালতে হাজির করে। জবানবন্দি দিতে রাজি না হওয়ায় পরে কারাগারে পাঠানো হয় কনস্টেবল হারুনকে। এর আগে কনস্টেবল টিটু চন্দ্র দাসও দুই দফা রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের পরও দায় স্বীকার করেননি।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের সহকারী কমিশনার (প্রসিকিউশন) অমূল্য কুমার চৌধুরী জানান, দুই দফায় ৮ দিনের রিমান্ড শেষে কনস্টেবল হারুনুর রশিদকে সিলেটের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জিয়াদুর রহমানের আদালতে হাজির করা হয়। পরে আদালতের নির্দেশে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পিবিআই পরিদর্শক মাহিদুল ইসলাম জানিয়েছেন, এই মামলায় বন্দরবাজার ফাঁড়ির এএসআই আশেক এলাহী বর্তমানে ৫ দিনের রিমান্ডে রয়েছেন। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

সিলেট নগরীর আখালিয়া নেহারীপাড়ার প্রয়াত রফিকুল ইসলামের ছেলে রায়হান আহমদকে গত ১০ অক্টোবর রাতে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ধরে নিয়ে নির্মম নির্যাতন চালানো হয়। পরদিন ১১ অক্টোবর সকালে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় রায়হানের স্ত্রী বাদী হয়ে সিলেট কোতোয়ালি থানায় মামলা করেছেন। প্রধান অভিযুক্ত বন্দরবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ (বরখাস্তকৃত) এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া পলাতক রয়েছেন। পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে মামলাটি তদন্ত করছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত