রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সস্তা জনপ্রিয়তা ও টাকার জন্য কানেরিয়া আমার বিরুদ্ধে লেগেছে: আফ্রিদি

আপডেট : ০৬ মে ২০২২, ০৬:০২ পিএম

সাবেক স্পিনার দানিশ কানেরিয়ার অভিযোগের প্রেক্ষিতে শুক্রবার কড়া প্রতিক্রিয়া দেখালেন পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদি।

সম্প্রতি ভারতীয় গণমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কানেরিয়া অভিযোগ করেন, হিন্দু হওয়ার কারণে আফ্রিদি তার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন এবং ইসলাম ধর্ম গ্রহণের জন্য চাপ প্রয়োগ করেন।

পাকিস্তানের সাবেক লেগ স্পিনার কানেরিয়া স্পট-ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার কারণে ক্রিকেট থেকে আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ। সম্প্রতি তিনি জানান, পাকিস্তানের হয়ে খেলার সময় আফ্রিদি দলে নিজের জায়গা ধরে রাখতে অন্য খেলোয়াড়দেরও তার বিরুদ্ধে উসকে দিতেন। যার কারণে বেশি ওয়ানডে খেলা হয়নি কানেরিয়ার।

তবে এই অভিযোগ অস্বীকার ‘বুম বুম আফ্রিদি’ জানান, তিনি নিজে ওই সময় ধর্মকে পুরোপুরি উপলব্ধি করার চেষ্টা করছিলেন। পাকিস্তানের সাবেক এই অলরাউন্ডার উল্টো কানেরিয়াকে নিজের চরিত্রের দিকে তাকাতে বলেছেন। আফ্রিদি বলেন, ‘যে ব্যক্তি এসব বলেছে, সে তার নিজের চরিত্রের দিকে তাকাক।’

৪২ বছর বয়সী তারকা জানান, স্পট-ফিক্সিং করে কানেরিয়া দেশের ‍সুনাম ক্ষুণ্ন করেছে এবং নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারও শেষ করেছে। আফ্রিদি বলেন, ‘সস্তা জনপ্রিয়তা ও টাকা কামানোর জন্য সে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছে।’

আফ্রিদি ও কানেরিয়া পাকিস্তানের হয়ে এক সঙ্গে অনেক বছর খেলেছেন। দুজনে ছিলেন দলের স্পিন বিভাগের অন্যতম সদস্য। কানেরিয়ার অভিযোগের জবাবে আফ্রিদি বলেন, ‘কানেরিয়া আমার ছোট ভাইয়ের মতো। আমি তার সঙ্গে একই বিভাগে অনেক বছর খেলেছি।

এই ডানহাতি ব্যাটারের উল্টো প্রশ্ন, ১৫-২০ বছর পরে কেন কানেরিয়া এই অভিযোগ করছে। আফ্রিদি বলেন, ‘সবাই তার চরিত্র সম্পর্কে জানে।’

সাবেক অধিনায়কের জিজ্ঞাসা, ‘আমার মনোভাব যদি এতই খারাপ হতো তাহলে সে কেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড ও আমরা যে বিভাগে খেলেছি সেখানে অভিযোগ করেনি।’

শেষে আফ্রিদি আরও বলেন, ‘সে আমাদের শত্রু দেশের গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিচ্ছে। যা ধর্মীয় অনুভূতি উসকে দিতে পারে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত