রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

দর্শকপ্রিয়তার জন্য সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছি

আপডেট : ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:১৯ এএম

মেধাবী অভিনেত্রী মৌটুসী বিশ্বাসের একাধিক চলচ্চিত্র একের পর এক চলচ্চিত্র উৎসব মাতাচ্ছে। তিনি এখন ব্যস্ত ধারাবাহিক নাটক ‘আগুনপাখি’র কাজ নিয়ে। এই তারকার সঙ্গে কথা বলেছেন মাসিদ রণ

ভ্যানকুভারে ‘প্রিয় সত্যজিৎ’...

অস্কারজয়ী বাঙালি নির্মাতা সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে ‘প্রিয় সত্যিজিৎ’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন প্রসূন রহমান। ছবিটি গত ২ মে সত্যজিৎ রায়ের জন্মদিনে মুক্তির কথা ছিল। কিন্তু সে সময় ঈদুল আজহা পড়ে পাওয়ায় আর মুক্তি পায়নি। তবে যা হয় ভালোর জন্যই হয়। ছবিটির প্রিমিয়ার হবে কানাডার ভ্যানকুভারে ‘সাউথ এশিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভাল’-এ। যদিও খবরটি আমি আপনার মাধ্যমেই জানলাম। নির্মাতা এখনো পর্যন্ত এ বিষয়ে আমাকে কিছু জানাননি। তবে নিজের কাজের এমন সুখবর নিঃসন্দেহে আমাকে আনন্দিত করছে। এর আগে আমার একাধিক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিশ্বের বিখ্যাত সব ফেস্টিভালে প্রদর্শিত হলেও পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র হিসেবে ‘প্রিয় সত্যজিৎ’ই প্রথম সিনেমা, যেটি এমন সম্মানজনক একটি ফেস্টিভালে দেখানো হবে। কাজটি আমরা সবাই সততার সঙ্গে করেছি। এখানে আমি একজন সূত্রধর, তথ্যচিত্র নির্মাতার চরিত্র। আহামরি চ্যালেঞ্জিং কোনো চরিত্র নয়, তবে ছবিটির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র এটি।

রিপলস : ঢেউ...

‘রিপলস : ঢেউ’ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেছেন সেঁজুতি তুষি। এটি কয়েকজন নানা পেশার মধ্য বয়স্ক নারীর গল্প। ছবিটি এরই মধ্যে মুম্বাই ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল ও কলকাতার ‘বিশ্ব চলচ্চিত্র উৎসব’-এ প্রদর্শিত হয়েছে। আমার দুর্ভাগ্য যে, একটি শো’তেও আমি উপস্থিত থাকতে পারিনি। তবে বাংলাদেশের ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভাল’-এ যদি এবার ছবিটি সুযোগ পায়, তাহলে পুরো টিমসহ দেখতে যাব। কাজটি নিয়ে আমি দারুণ আশাবাদী। কারণ নির্মাতা অত্যন্ত যত্ন নিয়ে ছবিটি করেছেন। আমিও ছোট ছবিটির জন্য বড় ছবির মতো পরিশ্রম করেছি। একজন মিউজিশিয়ানের চরিত্র ফুটিয়ে তুলতে দিনের পর দিন নানা ধরনের অনুশীলনের মধ্যে নিয়ে গেছি।

ধারাবাহিক ‘আগুনপাখি’...

হাসান আজিজুল হকের উপন্যাস অবলম্বনে ‘আগুনপাখি’ ধারাবাহিকটি নির্মিত হয়েছে। দীপ্ত টিভিতে এরই মধ্যে নাটকটির ৫০তম পর্ব প্রচার হয়ে গেছে। এখানে আমি কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছি। কাজটি শুরু করেছিলাম করোনারও আগে। তখন অভিনয় ও ক্যারিয়ার নিয়ে একধরনের চিন্তা ছিল আমার। কিন্তু এটি যখন প্রচার শুরু হলো তখন আমি টিভি নাটক থেকে অনেক দূরে। এখন আমি একধরনের চর্চার মধ্যে আছি, টিভি নাটকে যার প্রতিফলন ঘটানো অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তাই এই মুহূর্তে এই একটি টিভি প্রোডাকশনই করছি। তাই এই কাজটি শেষ করব কি না দ্বিধায় ছিলাম। কিন্তু ধারাবাহিকটির দর্শকপ্রিয়তার জন্য আমি সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছি। দিনশেষে আমরা দর্শকের জন্যই কাজ করি। যখন টিভি নাটকের বেহাল দশা, তখন একটি ধারাবাহিক নাটক নিয়ে দর্শক কথা বলছে, দেখছে এটিই বড় কথা। তা ছাড়া টিভি কর্তৃপক্ষ, প্রযোজক ও পরিচালকের বিশেষ আগ্রহের জন্য আমি কাজটি শেষ করতে চাই। অবশ্যই মনোযোগ দিয়ে কাজটি করব। কারণ চরিত্রটি শুধু ধারাবাহিকের কেন্দ্রীয় চরিত্রই নয়, এটি শক্তিশালী ও অভিনয়সমৃদ্ধ একটি চরিত্র।

   
সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত