শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

চাঁদা না দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে মারধর ‘স্বেচ্ছাসেবক লীগ’ নেতার

আপডেট : ১৩ মে ২০২৪, ০৬:২৪ পিএম

চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ বোস্তামি থানাধীন কুঞ্জছায়া আবাসিক এলাকায় ‘স্বেচ্ছাসেবক লীগ’র পরিচয়ে চাঁদার দাবিতে ব্যবসায়ীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে এক নেতার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত রাজিব হোসেন ওরফে বার্মায়া রাজিব (৩৫) নামের ওই যুবকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলার আবেদন করেছেন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী। 

গত ৯ মে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ৩ নং আদালতে রাজিবসহ তিনজনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ করেছেন। আদালত বিষয়টি আমলে নিয়ে শিল্প পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। রাজীব হোসেনের অপর তিনজন সহযোগীকে হলেন— মো. শাহীন (২৬), মো. জাহাঙ্গীর (৪৫) ও নুর উদ্দিন প্রকাশ ভাণ্ডারী (৩৪)।

মামলার আবেদনে নজরুল ইসলাম অভিযোগ করেন, প্রায় ৮ মাস আগে কুঞ্জছায়া আবাসিক এলাকায় ‘মায়া ডোর হাউস’ নামে একটি ফার্নিচার  দোকান চালু করেন তিনি। চালু করার পর থেকে রাজিব ও তার সহযোগীরা নজরুলের কাছে ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন।

চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে গত ৪ মে দিবাগত রাত সাড়ে ১১ টার দিকে নজরুলের দোকানে এসে  ফের ১ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন রাজিব ও তার সহযোগীরা। এ সময় চাঁদা দিতে অপরাগত প্রকাশ করায় নজরুলের দোকানে হামলা ও ভাঙচুর চালান রাজিব ও তার সহযোগীরা। এ সময় নজরুলের ক্যাশ বাক্স  থেকে নগদ ৬০ হাজার টাকা নিয়ে যান তারা। 

ভুক্তভোগী নজরুল আজ সোমবার দেশ রূপান্তরকে বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সংগঠক পরিচয় দেওয়া রাজিবের অত্যাচারে আমরা অতিষ্ঠ। তার চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ থেকে রেহায় পাচ্ছেন না স্থানীয় ব্যবসায়ীসহ সাধারণ মানুষ। কেউ তার অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে তাদের ওপর বিভিন্নভাবে নির্যাতন চালানো হয়। প্রসঙ্গত, চাঁদা না দেওয়ার জেরে ফার্নিচার ব্যবসায়ী নজরুলের দোকানে রাজিব ও তার সহযোগীদের হামলার একটি সিসিটিভি ফুটেজ এই প্রতিবেদকের হাতে এসেছে। 

পুলিশ সূত্র জানায়, ২০১৭ সালে নেজাম উদ্দিন নামে এক ভুক্তভোগী তার (রাজিব) বিরুদ্ধে আদালতে ১ কোটি ২০ লাখ টাকার প্রতারণা মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় গ্রেপ্তারের পর ২/৩ মাস কারাভোগও করেন রাজিব। মামলাটি এখন বিচারাধীন বলে জানিয়েছেন নেজাম উদ্দীন। এছাড়া রাজিবের বিরুদ্ধে নগরের কোতোয়ালি ও বায়েজিদ বোস্তামি থানায় চাঁদাবাজি ও প্রতারণার একাধিক মামলা রয়েছে।

রাজিব বিষয়ে জানাতে চাইলে সোমবার বিকেলে বায়েজিদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সঞ্জয় কুমার সিংহ বলেন, ‘রাজিবের বিরুদ্ধে থানায় নয় আদালতে মামলার আবেদন করেছেন ভুক্তভোগী নজরুল ইসলাম নামের এক ব্যবসায়ী। তবু রাজনৈতিক দলের সংগঠক পরিচয়ে এলাকায় সে যদি ফৌজদারি অপরাধ করলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত রাজিবের ফোনে একাধিকার কল করলেও তিনি রিসিভ করেননি।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত