বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ধর্ষণের পর মারধরের শিকার তরুণীর আত্মহত্যা

আপডেট : ২৬ মে ২০২৪, ০৬:৩৩ এএম

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ধর্ষণের মামলায় জামিনে মুক্ত হয়ে এলাকায় ফিরে ধর্ষণ মামলার বাদী তরুণীকে মারধর ও হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে এক যুবকের বিরুদ্ধে। আর এই ক্ষোভে ওই তরুণী বিষপান করে আত্মহত্যা করেছেন বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা। গত শুক্রবার রাতে উপজেলার বিশনন্দী ইউনিয়নের মানিকপুর এলাকার নিজ বাড়িতে বিষপান করেন তরুণী।

তরুণীর চাচাতো ভাই আনোয়ার অভিযোগ করে বলেন, বিশনন্দীর মানিকপুর বাজারে ধর্ষণ মামলায় কারামুক্ত হওয়া জহিরুল ও তার বাবা রেজাউল তরুণীকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। এই অপমান সইতে না পেরে বিষপান করে আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় তরুণী।

জানা গেছে, বিশনন্দী ইউনিয়নের চালাকচর এলাকার রেজাউলের ছেলে জহিরুলের (২৫) সঙ্গে একই ইউনিয়নের মানিকপুর গ্রামের ওই তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল। গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে তরুণীকে নিয়ে ঘুরতে বের হয়ে আড়াইহাজার পৌর বাজারের আব্বাস মার্কেটের তৃতীয়তলার একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করেন জহিরুল। এ ঘটনায় তরুণী বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় মামলা করলে জহিরুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। দীর্ঘদিন হাজতবাসের পর গত সোমবার জহিরুল জামিন পেয়ে বাড়িতে আসেন। পরে শুক্রবার বিকেলে মামলার বাদী তরুণীকে মানিকপুর বাজারে পেয়ে জহিরুল ও তার বাবা রেজাউল মামলা তুলে নিতে চাপ দেন। এতে তরুণী রাজি না হলে জহিরুল ও তার বাবা রেজাউল তরুণীকে অপদস্থ ও মারপিট করেন। এ ঘটনা ঘটিয়ে রেজাউল মামলা থেকে বাঁচার জন্য তরিঘড়ি করে নিজে বাদী হয়ে উল্টো তরুণীর বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ করেন। এতে রাগে দুঃখে তরুণী বাড়িতে গিয়ে বিষপান করেন। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে তার মৃত্যু হয়। ওই হাসপাতালে মরদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি মোহাম্মদ আহসানউল্লাহ জানান, মামলা করলে এ ঘটনায় তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত