শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

পশু আমদানির কোনও অনুমতি দেয়নি সরকার: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

আপডেট : ০৯ জুন ২০২৪, ০৭:৪৯ পিএম

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মো. আব্দুর রহমান বলেছেন, দেশে পর্যাপ্ত কোরবানির পশু প্রস্তুত রয়েছে। এবার আমাদের প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখ গবাদিপশু কোরবানির জন্য প্রস্তুত। যেখানে আমাদের চাহিদা ১ কোটি ৭ লাখ। সেই হিসেবে ২৩ লাখ দেশীয় গবাদিপশুর উদ্বৃত্ত রয়েছে, যেটা আমাদের বাড়িত প্রস্তুতি।

আজ রবিবার দুপুরে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএলআরআই) এ বার্ষিক গবেষণা পরিকল্পনা কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এ মন্তব‍্য করেন।

এ সময় প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রীয়ভাবে সরকারের পক্ষ থেকে বৈধভাবে কোরবানির পশু আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়নি। এরপরও যদি চোরাই পথে কোনো পশু বাংলাদেশে ঢোকে তার দায় আমরা নেব না। কারণ রাতের আঁধারে দেশে অনেক কিছুই ঢোকে। সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনী তাদের প্রতিহতের চেষ্টা করছে। আমরাও বিষয়টি নিয়ে জনগণকে সচেতন করার চেষ্টা করছি।

আয়োজিত কর্মশালায় বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. এস এম জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রাণালয়ের সচিব সাঈদ মাহমুদ বেলাল হায়াদার।

কর্মশালায় স্বাগত বক্তব্য দেন বিএলআরআই'র মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও পরিচালক (গবেষণা) ড. নাসরিন সুলতানা এবং বিএলআরআই'র চলমান গবেষণা কার্যক্রম এবং ভবিষ্যৎ গবেষণা পরিকল্পনা উপস্থাপনা করেন ইনস্টিটিউটের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এবং প্রশিক্ষণ, পরিকল্পনা এবং প্রযুক্তি পরীক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ড. মো. রাকিবুল হাসান।

অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট'র মহাপরিচালক ড. এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, আয়োজিত কর্মশালার মাধ্যমে সরকারের বিভিন্ন অভীষ্ট ও লক্ষ্যমাত্রা, রূপকল্প-২০৪১ ও দ্বিতীয় প্রেক্ষিত পরিকল্পনা, টেকসই উন্নয়ন অভিলক্ষ্য, অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা, নির্বাচনী ইশতেহার প্রভৃতির আলোকে বিএলআরআই-এর চলমানা কার্যক্রমসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি ও ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরা হয়।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত