রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর গর্ভপাত, মামলা

আপডেট : ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:৫৭ পিএম

জয়পুরহাটে ধর্ষণের পর অন্তঃসত্ত্বা এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীকে গর্ভপাত করানোর অভিযোগে মামলা হয়েছে। গত শনিবার জরিনা খাতুন (৩০) নামে ওই প্রতিবন্ধীর বাবা আবদুল জলিল জয়পুরহাট থানায় এ মামলা করেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, সদর উপজেলার ধারকি-ঘোনাপাড়া গ্রামের জলিলের মেয়ে জরিনা প্রতিবেশী নাসির উদ্দিনের বাড়িতে তিন বছর গৃহপরিচালিকার কাজ করে আসছিল। গত বছরের ২০ মে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে জরিনাকে নাসির তার শোবার ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এতে জরিনা অন্তঃসত্ত্বা হন।

গত ৩০ জানুয়ারি সকাল ১০টার দিকে অন্তঃসত্ত্বা জরিনাকে নাসিরের পরিবারের লোকজন কৌশলে অটোরিকশায় করে জয়পুরহাট শহরের একটি ক্লিনিকে নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করায়। পরে ওই দিনই জামালগঞ্জ এলাকার অজ্ঞাত এক বাড়িতে নিয়ে রাত ৮টার দিকে তার গর্ভপাত ঘটায় এবং কিছু ওষুধ দিয়ে তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। বাড়িতে আসার পর জরিনার শারীরিক অবস্থা দেখে পরিবারের ও আশপাশের লোকজন তার গর্ভপাতের বিষয়টি জানতে পারেন। স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালীরা ধর্ষণ ও গর্ভপাতের বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টায় ব্যর্থ হলে শনিবার নাসিরসহ চারজনকে আসামি করে জরিনার বাবা জয়পুরহাট থানায় মামলা করেন।

এ ব্যাপারে জয়পুরহাট থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, চারজনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। জরিনার মেডিকেল পরীক্ষার প্রস্তুতি চলছে। আসামিদের গ্রেপ্তারে জোর তৎপরতা অব্যাহত আছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত