শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ক্ষতিপূরণের লোভে নিহত ভারতীয় সেনার স্ত্রীকে দেবরের সঙ্গে বিয়ের চাপ

আপডেট : ০২ মার্চ ২০১৯, ০৭:১০ পিএম

ভারতের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় নিহত ভারতীয় সেনার স্ত্রীকে দেবরের সঙ্গে বিয়ের চাপ দিচ্ছে পরিবার। নিহত ভারতীয় বাহিনীর সদস্য এইচ গুরুর স্ত্রী কলাবতী (২০) স্থানীয় পুলিশকে এ অভিযোগ জানিয়েছেন।

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় ৪০ জন সিআরপিএফ সেনার মৃত্যু হয়। নিহতের মধ্যে ছিলেন ৩৩ বছর বয়সী গুরু।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, হামলার দশ মাস আগে কলাবতীর সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল তার। বাড়িতে ছুটি কাটিয়ে ১৪ ফেব্রুয়ারি কাজে যোগ দেওয়ার দিনেই হামলায় নিহত হন গুরু। 

পুলিশের কাছে তরুণী জানিয়েছেন, স্বামীর মৃত্যুতে পাওয়া ক্ষতিপূরণ যাতে বাড়ির বাইরে না যায়, তার জন্য শ্বশুরবাড়ির সবাই দেবরের সঙ্গে তার বিয়ের জন্য চাপ দিচ্ছে।

বাধ্য হয়ে বুধবার কর্নাটকের মান্ড্য থানায় অভিযোগ করেন কলাবতী।

পুলওয়ামার জঙ্গি হামলায় নিহতদের সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছে একাধিক সংগঠন। গুরুর পরিবারকে ২৫ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামী।

সেই সঙ্গে কলাবতীকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

এ ছাড়া একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা সাহায্য ঘোষণা করেছে। আরও বেশ কিছু বেসরকারি সংগঠন সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

তা ছাড়া কেন্দ্রীয় সরকার ও সিআরপিএফের দেওয়া ক্ষতিপূরণ তারা পাবে।

প্রয়াত কন্নড় নেতা-অভিনেতা অম্বরীশের স্ত্রী সুমালতা গুরুর স্ত্রীকে দেড় বিঘা জমি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

মান্ড্য পুলিশ জানিয়েছে, তারা অভিযোগ দায়ের করেনি। তবে বিষয়টি মিটিয়ে নেওয়া না হলে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। গুরুর পরিবারকে সে বিষয়ে সতর্ক করেছে পুলিশ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত