বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

‘হিজাব পরা শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে পারবে না’

আপডেট : ০৫ মার্চ ২০২৩, ০৯:১৩ পিএম

ভারতের কর্নাটক রাজ্যে আগামী ৯ মার্চ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে দ্বিতীয় প্রাক-বিশ্ববিদ্যালয় কোর্স (পিইউসি) পরীক্ষা। তবে এতে হিজাব পরে অংশ নিতে পারবেন না শিক্ষার্থীরা। রোববার (৫ মার্চ) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য হিন্দু এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়।

কর্নাটক রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী বিসি নগেশ বলেন, ‘গত বছরের মতো এবারও শিক্ষার্থীদের ইউনিফর্ম পরে পরীক্ষা দিতে হবে। হিজাব পরা থাকলে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষায় অংশ নিতে দেওয়া হবে না। নিয়ম মেনে চলতে হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও সরকার অনুমোদিত আইন অনুযায়ী কাজ করছে।’

তিনি আরও জানান, হিজাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের পর গত বছর পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী মুসলিম শিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে। তবে তিনি কোনো সুনির্দিষ্ট সংখ্যা উল্লেখ করেননি।

এদিকে কর্নাটকের সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে হিজাব পরে পরীক্ষায় বসার অনুমতি দেওয়ার আবেদন অবিলম্বে তালিকাভুক্ত করার বিষয়টি খারিজ করে দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট। এতে অনেক শিক্ষার্থী তাদের শিক্ষাজীবনের একটি বছর হারাতে পারেন উল্লেখ করে আইনজীবীরা জরুরি শুনানি আয়োজনের আবেদন করেন। তখন ভারতের প্রধান বিচারপতি ধনঞ্জয় যশবন্ত চন্দ্রচূড় বলেন, ‘আমি (এ বিষয় এ সিদ্ধান্তের জন্য) একটি বেঞ্চ গঠন করব।’

২০২২ সালের ১ জানুয়ারি কলেজ উন্নয়ন কাউন্সিল (সিডিসি) কলেজ ও স্কুলের ক্যাম্পাসের ভেতর হিজাব পরা নিষিদ্ধ করে। ফলে শিক্ষার্থীরা কলেজ ভবনের বাইরে বসে বিক্ষোভ করে। কলেজ কর্তৃপক্ষ দাবি করে, কখনোই শ্রেণিকক্ষে হিজাব পরার অনুমোদন ছিল না। গত বছরের ফেব্রুয়ারি নাগাদ সমগ্র ভারতে এই বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত