বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

পূজা চেরির জীবন বাঁচিয়েছিলেন এই অভিনেতা

আপডেট : ১৩ মে ২০২৪, ০৩:১১ পিএম

সদ্যই সাতপাকে বাঁধা পড়েছেন কলকাতার অভিনেতা আদৃত রায়। পাত্রী কৌশাম্বি চক্রবর্তী। আপাতত তাদের নিয়েই চর্চা চলছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে তার বিভিন্ন ভিডিও। মূলত ছোটপর্দার হাত ধরে আদৃত জনপ্রিয়তা পেলেও তার ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল মূলত বড়পর্দার হাত ধরেই।

তার প্রথম ছবি ছিল ‘নূরজাহান’, যেটি কিনা ২০১৮ সালে মুক্তি পায়। ছবিতে আদৃতের বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন পূজা চেরি। সে সিনেমাটির শুটিং করার সময় এক ভয়ংকর দুর্ঘটনা ঘটতে চলেছিল। শুটিংয়ের দৃশ্য করতে গিয়ে ডুবে মৃত্যু হতে পারত পূজা চেরির! তবে সেদিন পূজার প্রাণ বাঁচিয়েছিলেন আদৃত। সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

সেদিনের ঘটনা বলতে গিয়ে আদৃত সঙ্গীতবাংলাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘নূরজাহান আমার ছবি, তাই সেই ছবির শ্যুটিংয়ের তেমন একটাও ঘটনা নেই, যেটা আমি ভুলে গিয়েছি। আমরা মুর্শিদাবাদে শ্যুট করছিলাম, একটা দৃশ্য ছিল পূজা জলে ঝাঁপ দেয়। আর সেসময় আমিই ওকে গিয়ে বাঁচাই। যদিও দৃশ্যটা আসলে ছিল জাহান-ই নূরকে বাঁচাবে। এদিকে পূজা একেবারই সাঁতার জানে না। শ্যুটিংয়ের সময় আমি দেখছি পূজা জলে ঝাঁপ দিয়েছে।

আসলে দৃশ্যে আমার ডায়ালগ ছিল বাঁচাও বাঁচাও…। এদিকে পূজা জলে ঝাঁপানোর পর আমিও ঝাঁপিয়েছি, তখন দেখি ওই বলছে বাঁচাও বাঁচাও বাঁচাও। এদিকে আমি অভিদার (পরিচালক অভিমন্যু মুখোপাধ্যায়) দিকে তাকিয়ে বলছি ও আমার ডায়ালগ কেন বলছে? তখন অভিদা বলছে, আরে নাহ, ও সত্যিই ডুবছে, বাঁচা ওকে। তখন ওকে গিয়ে তুলি। ওই ঘটনাটা সত্যিই আমার ভীষণভাবে মনে আছে।’

প্রসঙ্গত, ২০১৮তে নূর জাহান ছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেছেন আদৃত রায়। ২০১৯-এ ‘প্রেম আমার-২’তেও নায়কের চরিত্রে ছিলেন আদৃত। এছাড়াও ২০১৯-এ 'পরিঁণীতা' এবং 'পাসওয়ার্ড' ছবিতেও গুরুত্বপূর্ণ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন আদৃত। তবে সিনেমার দুনিয়ায় সেভাবে সাফল্য আসেনি। তবে ২০২১ থেকে শুরু হওয়া জি বাংলার 'মিঠাই' ধারাবাহিকের হাত ধরেই জনপ্রিয়তা পান আদৃত রায়। 

এদিকে ব্যক্তিগত জীবনে ৯ মে বৃহস্পতিবার বান্ধবী কৌশাম্বি চক্রবর্তীর সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়েন অভিনেতা। কৌশাম্বির সঙ্গেও আদৃতের বন্ধুত্বের শুরু হয়েছিল 'মিঠাই'তে কাজ করার সময় থেকেই।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত