সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

শাহজাদপুরে সাংবাদিককে মারধর ছাত্রলীগের

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ০২:০২ এএম

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে পৌর সদরে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের হামলার শিকার হয়েছেন বেসরকারি টেলিভিশন স্টেশন ৭১ টিভির বেলকুচি উপজেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল অধিকারী (২৮)। শাহজাদপুর পৌর সদরের মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স সড়কে গত বৃহস্পতিবার রাতের এ হামলায় নেতৃত্ব দেন শাহজাদপুর উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাওন রহমান শিবু ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবির আফ্রেদি নীরব।

হামলাকারীরা সাংবাদিক উজ্জ্বল অধিকারীকে বেধড়ক মারধর করে তার মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয়। এ সময় তাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে এলে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা তার সহযোগী অতুল কুমার হলদারকেও (৩৮) মারধর করে। পুলিশ ঘটনার আট ঘণ্টার পর ছিনিয়ে নেওয়া মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করেছে। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই সাংবাদিক উজ্জ্বল অধিকারী বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতপরিচয় আরও সাত-আট ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে আসামি করে শাহজাদপুর থানায় মামলা করেছেন।

মামলার আসামিরা হলো শাহজাদপুর উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও চালা শাহজাদপুর মহল্লার শাওন রহমান শিবু (২৫), শাহজাদপুর পৌর এলাকার ইমলামপুর রামবাড়ি এলাকার নীরব (২৪), ইয়ামিন (২৫), নাহিদ (২৫), সায়েম (২৯), সুমন (২৪), হৃদয় (২৬), শিহাব (২৮), রবিন (৩০), চঞ্চল (২৮) ও কাঞ্চন (৩২)। হামলার ওই ঘটনার পর আসামিরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের এখনো গ্রেপ্তার করেনি।

এ বিষয়ে আহত সাংবাদিক উজ্জ্বল অধিকারী বলেন, ‘ওইদিন রাতে একটি কাজে অতুল কুমার হালদারকে সঙ্গে নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স সড়কে দাঁড়িয়েছিলাম। উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাওন রহমান শিবু ও সাংগঠনিক সম্পাদক আবির আফ্রেদি নীরবের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের ১০-১২ জনের একটি দল মোটরসাইকেলে চড়ে এসে হঠাৎ হামলা চালিয়ে আমাকে বেধড়ক মারধর করে। আমাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে এলে তারা অতুলকেও মারধর করে গুরুতর আহত করে চলে যায়। খবর পেয়ে শাহজাদপুর থানা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান এবং শাহজাদপুর থানার ওসি আসলাম হোসেনসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।’

শাহজাদপুর থানা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরুজ্জামান বলেন, ‘এ বিষয়ে একটি লিখিত এজাহার পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত