মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ইসলামে আনুগত্যের প্রয়োজনীয়তা

আপডেট : ২৭ মে ২০২৪, ১২:৫৮ এএম

আনুগত্য একটি সংঘবদ্ধ সমাজের প্রাণ। আনুগত্য না থাকলে ওই সমাজ বেশিদিন টিকবে না, এটাই বাস্তবতা। মুসলিম সমাজের যথার্থ সমাজপতি অথবা নেতার আনুগত্য করা না করার মধ্যে জান্নাত বা জাহান্নাম নির্ধারিত হয়। ইসলামি সমাজ ও দলের নেতার আনুগত্য করার জন্য আল্লাহতায়ালা নিজে আদেশ করেছেন। এ প্রসঙ্গে আল্লাহতায়ালা বলেন, ‘হে ইমানদারগণ, আনুগত্য করো আল্লাহর, আনুগত্য করো রাসুলের, আনুগত্য করো তোমাদের মধ্যে যারা দায়িত্বশীল তাদের।’

হজরত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘তোমাদের মধ্যে যদি হাবশি গোলাম আমির নির্বাচিত হয়, তার মাথা যদি তালের আঁটির মতো হয়, তবুও তার আনুগত্য করো।’ হজরত আবদুল্লাহ ইবনে ওমর (রা.) থেকে বর্ণিত, হজরত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলিইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘দায়িত্বশীল ব্যক্তির কথা শোনা ও মানা মুসলিম ব্যক্তির জন্য অবশ্য কর্তব্য। সে হুকুম তার পছন্দমতো হোক বা না হোক, এ শর্তে যে তা যেন নাফরমানি কাজের জন্য না হয়। আর যখন আল্লাহর নাফরমানি সংক্রান্ত কোনো কাজের জন্য তাকে আদেশ দেওয়া হবে, তখন তা শোনা বা মানা যাবে না।’ (সহিহ বুখারি)

ইসলামি শরিয়ত আনুগত্যের বিষয়ে এমন কঠোর হলেও আনুগত্যের জন্য কিছু নীতিমালাও বলে দেওয়া হয়েছে। ইসলাম মনে করে, মহান আল্লাহ এবং তার রাসুলের প্রতি মানুষের আনুগত্য হবে শর্তহীন। সুতরাং মহান আল্লাহর ভালোবাসা পেতে হলে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্য করতে হবে। পবিত্র কোরআনে ইরশাদ হয়েছে, ‘হে নবী! আপানি বলুন, তোমরা যদি মহান আল্লাহকে ভালোবাসার দাবিদার হয়ে থাক, তবে আমাকে অনুসরণ করো, তাহলে আল্লাহ তোমাদের ভালোবাসবেন এবং তোমাদের গুনাহগুলো ক্ষমা করে দেবেন, আল্লাহ অতিশয় ক্ষমাশীল ও দয়ালু।’ (সুরা ইমরান ৩১)

ইসলাম আরও মনে করে, মুমিন হতে হলে হজরত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্য করতে হবে। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্য না করলে মুসলমানের সব আমল বিনষ্ট হয়ে যায়। পক্ষান্তরে যারা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের আনুগত্য থেকে মুখ ফিরিয়ে নেবে, তাদের পরিণতি হবে অত্যন্ত খারাপ। নেতার আনুগত্য হলো, জান্নাত লাভের অন্যতম শর্ত।

ইসলাম আরও মনে করে, মুসলিম সমাজে দায়িত্বশীলের আনুগত্য করতে হবে। এ বিষয়ে হজরত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, ‘প্রত্যেক মুসলিমের ওপর নেতার নির্দেশ শোনা এবং আনুগত্য প্রকাশ করা অবশ্য কর্তব্য, চাই তা পছন্দ হোক বা অপছন্দ হোক, যতক্ষণ পর্যন্ত না আল্লাহর নাফরমানির নির্দেশ দেওয়া হয়। আল্লাহর নাফরমানির নির্দেশ দেওয়া হলে তা শোনা এবং আনুগত্য করা যাবে না।’ (সহিহ বুখারি)

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত