বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

চোরাকারবারিদের টার্গেট সাংবাদিক

আপডেট : ১২ জুন ২০২৪, ১১:৩১ পিএম

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে একটি সংঘবদ্ধ চোরাকারবারি প্রশাসনের চোখকে ফাঁকি দিয়ে দীর্ঘদিন থেকে ভারত থেকে আনা অবৈধ চিনির ব্যবসা করে আসছিল। এ সকল অবৈধ চিনি নিয়ে অনুসন্ধান করতে গিয়ে চোরাকারবারিদের রোষানলে পড়েছেন স্থানীয় সাংবাদিকরা।

জানা যায়, সিলেটের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে একটি চোরাকারবারী চক্র ভারতী থেকে চিনি এনে প্রতিষ্ঠিত শিল্পগ্রুপগুলোর বস্তাতে ভরে বাজারে বিক্রি করে ব্যবসা করে আসছে। গত কয়েকদিন আগে সাংবাদিকদের দেওয়া তথ্যমতে জুড়ী উপজেলার এক দোকানে পিকআপ বোঝাই চিনি নামানোর সময় ভারতীয় চিনিসহ একটি গাড়িকে আটক করে থানা পুলিশ। পরে এ ঘটনায় থানায় মামলা হলে চালকসহ দোকানমালিককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকে চোরাকারবারিরা স্থানীয় সাংবাদিকদের বশে আনতে বিভিন্ন ফন্দি আটে। 

গত ১২ জুন রাতে স্থানীয় সাংবাদিক হারিছ মোহাম্মদ ওষুধ কিনতে জুড়ীর পোস্ট অফিস রোডে মোটরসাইকেলে যাওয়ার সময় চোরাকারবারিরা একটি পিকআপভ্যান দিয়ে হারিছকে হত্যার উদ্দেশ্যে চাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় সাংবাদিক হারিছ সড়কের পাশে পড়ে আহত হন। এ সময় চিনির গাড়িতে চালকের পাশে বসা অবৈধ ভারতীয় চিনির সিন্ডিকেটের মূলহোতা বড়লেখা উপজেলার তালিমপুর ইউনিয়নের জাহাঙ্গীর আলম সাংবাদিক হারিছ মোহাম্মদকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন। প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে গাড়ি নিয়ে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন তারা। পরে স্থানীয়রা দ্রুত সাংবাদিক হারিছ মোহাম্মদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করেন।

এ বিষয়ে জুড়ী থানায় হারিছ মোহাম্মদ বাদী হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম মাইন উদ্দিন বলেন, একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত