রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

৪ শিক্ষার্থীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণের আদেশ

আপডেট : ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৪:০৭ এএম

সম্প্রতি ঢাকার কেরানীগঞ্জ ও চট্টগ্রামে সড়ক দুর্ঘটনায় তিন শিশু শিক্ষার্থী এবং এক কলেজছাত্রী নিহত হওয়ার ঘটনায় তাদের প্রত্যেক পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি ওই শিক্ষার্থীদের পবিবারকে ১৫ দিনের মধ্যে এক লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে স্বরাষ্ট্র সচিব, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্র্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। ক্ষতিপূরণ চেয়ে গত ৩ ফেব্রুয়ারি চিলড্রেন চ্যারিটি বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন (সিসিবিএফ) এবং বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড অ্যান্ড সার্ভিসেস ট্রাস্টের (ব্লাস্ট) পক্ষে রিট আবেদনটি করা হয়। আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আব্দুল হালিম ও জামিউল হক ফয়সাল। আদালত এ বিষয়ে পরবর্তী আদেশের জন্য ১৫ এপ্রিল দিন ধার্য রেখেছেন।

আইনজীবী আবদুল হালিম জানান, গত ২২ জানুয়ারি চট্টগ্রামের কদমতলী ফ্লাইওভারে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত অষ্টম শ্রেণির ছাত্র কাজী মাহমুদুর রহমান, ১৬ জানুয়ারি চট্টগ্রামের চান্দগাঁও এলাকায় নিহত একাদশ শ্রেণির ছাত্রী সুমা বড়–য়া ও ২৯ জানুয়ারি কেরানীগঞ্জে নিহত দুই শিশু শিক্ষার্থী ফাতেমা আফরীন ও আসিফ হোসেনের পরিবারকে এ ক্ষতিপূরণের টাকা দিতে হবে বলে আদালতের আদেশে বলা হয়েছে।

ক্ষতিপূরণের আদেশ ছাড়াও ওই সব দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধান, এ বিষয়ে মামলা ও কী ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে সংশ্লিষ্ট চার থানার ওসিকে প্রতিবেদন তৈরি করে তা দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে আদালত। এ ছাড়া সংশ্লিষ্ট অধ্যাদেশ ও বিধি অনুসারে মোটরযান চালকদের যথাযথ প্রশিক্ষণে ব্যর্থতা, ওই সব ঘটনায় মামলা না করা, চালকদের গ্রেপ্তার না করা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না- রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, সড়ক পরিবহন ও সেতু  মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিআরটিএর চেয়ারম্যান, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ঢাকা মহানগর পুলিশের কমিশনার, চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের কমিশনারসহ ১৪ বিবাদীকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত