সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ২ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

নিশ্চিত জয়

আপডেট : ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩, ১১:৪২ এএম

মোস্তাফিজ আমিন, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) : নির্বাচনী ঢেউ এখনো তেমন চোখে পড়ছে না কিশোরগঞ্জ-৬ (ভৈরব-কুলিয়ারচর) সংসদীয় এলাকায়। তবে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে বিরামহীন সভা-সমাবেশ ও প্রচার চলছে দিন-রাত। সেসবে স্থানীয় নেতাকর্মীরা ছাড়াও অংশ নিচ্ছেন বর্তমান সাংসদ, আওয়ামী লীগের প্রার্থী নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান। সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রয়াত জিল্লুর রহমান ও আওয়ামী লীগের নেত্রী শহীদ আইভি রহমানের ছেলে।

এই আসনে পাপনের নৌকার সঙ্গে সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন। তারা হলেন ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) তারেক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম (আম প্রতীক), জাতীয় পার্টির নূরুল কাদের সোহেল (লাঙ্গল প্রতীক), স্বতন্ত্র মোহাম্মদ আব্দুছ ছাত্তার (ঈগল প্রতীক), বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের মোহাম্মদ আয়ুব হুসেন (ঘড়ি প্রতীক), বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মো. রুবেল হোসেন (মোমবাতি) ও বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির (বিএসপি) হেলাল উদ্দিন (একতারা)।

তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মো. রুবেল হোসেন। তিনি ভৈরব-কুলিয়ারচর এলাকার মসজিদভিত্তিক বিশেষ করে সুন্নি মতাদর্শে বিশ্বাসী আলেম-ওলামাদের ওপর ভর করে তার মোমবাতির প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। তিনি গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও অংশ নিয়েছিলেন। একই দলের হয়ে একই প্রতীকে নির্বাচন করে জামানত হারিয়েছিলেন। এ ছাড়া কুলিয়ারচর উপজেলার বাসিন্দা স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুছ ছাত্তার একজন আইনজীবী। ভৈরবে প্রচার না থাকলেও নিজ উপজেলায় কিছু কিছু প্রচার করছেন তিনি। তিনি ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত কুলিয়ারচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. ইয়াসির মিয়ার সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে সবার নজর কাড়েন। বাকি প্রার্থীদের কিছু পোস্টার লাগানো ছাড়া আর কোনো কার্যক্রম তেমন চোখে পড়ছে না।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত